Login | Register

নুয়াইম বিন হাম্মাদের: আল ফিতান

মাহদীর চরিত্র ও তার ন্যায় পরায়ণতা ও তার সময়ের উর্বরতা সম্পর্কে

   

মাহদীর চরিত্র ও তার ন্যায় পরায়ণতা ও তার সময়ের উর্বরতা সম্পর্কে

Double clicking on an arabic word shows its dictionary entry
হযরত কা’ব রাযিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন মাহদী আলাইহিস সালাম রোমে যুদ্ধের জন্য সৈন্য পাঠাবেন। সেখানে দশজন বুদ্ধিমান জ্ঞানী দিবেন। যারা আন্তাকিয়ার এক গুহা থেকে তাবুতের সাকীনা খুজে বের করবে। যেটার ভিতর আল্লাহ তা’আলা মুসা আলাইহিস সালামের উপর যে তাওরাত নাযিল করেছিলেন। এবং ঈসা আলাইহিস সালামের উপর ইঞ্জিল নাযিল করেছিলেন তা থাকবে। তিনি তাওরাত ওয়ালাদেরকে তাওরাত দ্বারা বিচার করবেন। এবং ইঞ্জিল ওয়ালাদের ইঞ্জিল দিয়ে বিচার করবেন।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০২২ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٢٢
حدثنا أبو يوسف المقدسي عن صفوان بن عمرو عن عبد الله بن بشر
الخثعمي
عن كعب قال المهدي يبعث بقتال الروم يعطي فقه عشرة
يستخرج تابوت
السكينة من غار بأنطاكية فيه التوارة
التي أنزل الله تعالى على موسى عليه السلام
والإنجيل
الذي أنزل الله تعالى على عيسى علسه السلام يحكم بين اهل التوراة بتوراتهم
وبين أهل الإنجيل بإنجيلهم
হযরত কা’ব রাযিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন মাহদী আলাইহিস সালামকে মাহদী বলে নাম করণের কারণ হচ্ছে কেননা সে লুকায়িত বিষয়েযর পথ প্রদর্শন (হেদায়াত) করবেন। এবং তাওরাত ও ইঞ্জিলকে এমন এক জায়গা হতে খুজে বের করবেন যার নাম হবে আন্তাকিয়া।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০২৩ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٢٣
حدثنا عبد الرزاق عن معمر عن مطر الوراق عمن
حدثه
عن كعب قال إنما سمي المهدي لأنه يهدي لأمر قد خفي ويستخرج التوراة
والإنجيل من أرض يقال لها أنطاكية
হযরত জা’ফর ইবনে সিয়ার শামী হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন যে মাহদী আলাইহিস সালামকে প্রত্যাখ্যান করবে সে অত্যাচারীর কাছে পৌছবে। এমনকি মানুষের মাড়ির দাতের নীচে যদি কিছু থেকে থাকে অপসারণ করবে যাতে তার কাছে ফিরে আসে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০২৪ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٢٤
حدثنا معتمر بن سليمان عن جعفر بن
سيار الشامي قال
يبلغ من رد المهدي المظالم حتى لو كان تحت ضرس إنسان شيء
انتزعه حتى يرده
হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে শারীক হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন মাহদী আলাইহিস সালামের সাথে রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এর ঝান্ডা থাকবে। আর তা হল বিজয়। হায়! যদি আমি তাকে পেতাম। আর আমি বিকলাঙ্গ।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০২৫ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٢٥
حدثنا يحيى بن اليمان عن قيس عن عبد الله بن شريك قال
مع المهدي راية رسول الله صلى الله عليه وسلم المغلبة ليتني أدركته وأنا أجدع
হযরত নওফ বাকালী হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন মাহদী আলাইহিস সালামের ঝান্ডার মধ্যে আল্লাহ তা’আলা অনুগত্যতা লেখা থাকবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০২৬ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٢٦
حدثنا يحيى بن اليمان عن سفيان الثوري عن أبي إسحاق
عن نوف
البكالي قال في راية المهدي مكتوب البيعة لله
হযরত ইবনে সিরীন হতে বর্ণিত যে, তাকে বলা হল, কে উত্তম? হযরত আবু বকর ও ওমর রাযিয়াল্লাহু আনহুমা নাকি মাহদী আলাইহিস সালাম? তিনি বলেন তিনি তাদের উভয়ের চেয়ে উত্তম। তিনি নবীর বরাবর।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০২৭ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٢٧
حدثنا يحيى عن السري بن
يحيى عن ابن سيرين
قيل له المهدي خير أو بكر وعمر رضى الله عنهما
قال هو
خير منهما ويعدل بنبي
হযরত আবু রওবাতা হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন মাহদী আলাইহিস সালাম (এর ব্যপারটা) কেমন যেন মিসকীনদের মাখনের সাথে ঝুলে থাকার মত।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০২৮ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٢٨
حدثنا يحيى عن سيف بن واصل عن أبي يونس عن أبي
رؤبة قال
المهدي كأنما يعلق المساكين الزبد
হযরত মাতরুল ওয়ারাক হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন মাহদী আলাইহিস সালাম তাওরাতকে বের করবেন গুযযা (ঘাটতি) এর জন্য। অর্থাৎ তাজা (মিশ্রণবিহীন) কিতাব আন্তাকিয়া থেকে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০২৯ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٢٩
حدثنا يحيى عن المنهال
بن خليفة عن مطر الوراق قال
المهدي يخرج التوراة غضة يعني طرية من أنطاكية
হযরত কা’ব রাযিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত যে, হযরত কাতাদা রাযিয়াল্লাহু আনহু বলেন উত্তম মানুষ হল মাহদী আলাইহিস সালামের সাহায্যকারী ও তার বাইয়াত গ্রহণকারী। দুই কূফার, ইয়ামানের অধিবাসীদের, ও সিরিয়ার সূফী সাধকদের থেকে। তার সামনে থাকবে হযরত জীবরাঈল আলাইহিস সালাম। তাদের পিছনে থাকবে মিকাঈল আলাইহিস সালাম। তারা হল আল্লাহ তা’আলার সৃষ্টিতে প্রিয় সৃষ্ট। আল্লাহ ত’আলা যুদ্ধ বিগ্রহ, অন্ধকারতা দূর করে দিবেন। আর পৃথীবি নিরাপদ হবে। (শান্তি ফিরে আসবে।) এমনকি একজন মহিলা পাঁচ জন মাহিলার মাঝে হজ্ব করবে, আর তাদের সাথে কোন পুরুষ থাকবে না। তারা আল্লাহ তা’আলাকে ব্যতীত আর কাউকে ভয় পাবে না। যমিন তার প্র্রবৃদ্ধিতা দিবে। আসামান তার বরকত দিবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০৩০ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٣٠
حدثنا الوليد عمن حدثه وقرأه
عن كعب قال قادة المهدي خير الناس أهل
نصرته وبيعته من أهل كوفان واليمن وأبدال الشام مقدمته جبريل وساقته ميكائيل محبوب
في الخلائق يطفيء الله تعالى
الفتن
ة العمياء وتأمن الأرض حتى إن المرأة لتحج في خمس نسوة
ما معهن رجل لا تتقي شيئا إلا الله تعطي الأرض زكاتها والسماء بركتها
হযরত তাউস হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন মাহদী আলাইহিস সালামের আলামত হল - সে আমমাল তথা কাজের উপর কঠিন হবে। মাল সম্পদের দিক দিয়ে দানশীল হবে। মিসকীনদের ক্ষেত্রে দয়াশীল হবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০৩১ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٣١
حدثنا فضيل بن عياض وابن عيينة جميعا عن ليث عن طاوس قال
علامة المهدي أن يكون
شديدا على العمال جوادا بالمال رحميا بالمساكين
হযরত আবু সাঈদ রাযিয়াল্লাহু আনহু রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম হতে বর্ণনা করেন যে, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন শেষ যমানায় একজন খলীফা বের হবে। সে মাল সম্পদ গণনা ব্যতীত দিবে। (দান করবে।)
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০৩২ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٣٢
حدثنا أبو معاوية عن
داود عن أبي نضرة
عن أبي سعيد رضى الله عنه عن النبي صلى الله عليه وسلم قال
يخرج في آخر الزمان خليفة يعطي المال بغير عدد
হযরত মাতার হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন তার নিকট হযরত উমর ইবনে আব্দুল আযীয আলোচনা করলেন। অতপর বললেন আমাদের নিকট এ খবর পৌছেছে যে, মাহদী আলাইহিস সালাম এমন কিছু করবেন যা উমর ইবনে আব্দুল আযীযও করে নাই। আমরা বললাম সেটা কি? তিনি বললেন তার নিকট এক ব্যক্তি আসবে অতপর তাকে কাছে (কিছু) চাইবে। অতপর সে বলবে তুমি বাইতুল মালে (রাষ্ট্রিয় কোষাগারে) প্রবেশ কর। এবং গ্রহণ কর। অতপর সে সেখানে প্রবেশ করবে। এবং গ্রহণ করবে। অতপর সে সেখান থেকে বের হবে। আর মানুষ তাকে দেখবে যে, সে পরিতৃপ্ত। (মানুষ দেখার কারণে সে) লজ্জিত হবে। এবং তার দিকে ফিরে আসবে এবং তাকে বলবে আমাকে আপনি যা দিয়েছেন তা ফিরিয়ে নিন। অতপর সে অস্বীকৃতি জানাবে এবং বলবে, আমি দেই। গ্রহণ করি না।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০৩৩ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٣٣
حدثنا ضمرة عن ابن شوذب
عن مطر قال
ذكر عنده عمر بن عبد العزيز فقال بلغنا أن المهدي يصنع شيئا لم
يصنعه عمر بن عبد العزيز
قلنا ما هو
قال يأتيه رجل فيسأله
فيقول ادخل
بيت المال فخذ فيدخل فيأخذ فيخرج فيرى الناس شباعا فيندم فيرجع إليه
فيقول خذ
ما أعطيتني
فيأبى ويقول إنا نعطي ولا نأخذ
হযরত আবু যিয়াদ হতে বর্ণিত যে, তিনি হযরত কা’ব রাযিয়াল্লাহু আনহু কে বলতে শুনেছেন যে, আমি নবী গণের কিতাব সমূহে মাহদী আলাইহিস সালাম সম্পর্কে পেয়েছি যে, তার কাজে যুলুম বা অত্যাচার থাকবে না। এবং দোষও থাকবে না।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০৩৪ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٣٤
حدثنا ضمرة عن ابن شوذب
عن أبي المنهال عن أبي زياد سمعت كعبا يقول إني أجد المهدي مكتوبا في أسفار
الأنبياء ما في عمله ظلم ولا عيب
হযরত কা’ব রাযিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন মহদী আলাইহিস সালামের নামকরণ মাহদী করে করার কারণ হচ্ছে যে, সে তাওরাত কিতাবের পথের দিকে পথ দেখাবে। সে তাওরাত কিতাবকে সিরিয়ার এক পাহাড় থেকে খুজে বের করবে। সে ইহুদিদেরকে উহার দিকে ডাকবে। অতপর উক্ত কিতাবের উপর অনেক দল আত্মসমর্পণ করবে। অতপর তিনি ত্রিশ হাজারের মত উল্লেখ করলেন।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০৩৫ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٣٥
حدثنا ضمرة عن ابن شوذب عن مطر
عن
كعب قال إنما سمي المهدي لأنه يهدى إلى أسفار من أسفار التوراة يستخرجها من جبال
الشام يدعو إليها اليهود فيسلم على تلك الكتب جماعة كثيرة ثم ذكر نحوا من ثلاثين
ألفا
হযরত মুহাম্মাদ ইবনে সিরীন হতে বর্ণিত যে, তিনি একবার যুদ্ধ সম্পর্কে আলোচনা করলেন। অতপর বললেন যখন উহা ঘটবে তখন তোমরা তোমাদের ঘরে উপবেশন করবে। (অবস্থান করবে।) যতক্ষণ পর্যন্ত না তুমি হযরত আবু বকর ও হযরত ওমর রাযিয়াল্লাহু আনহুমা হতে মানুষের উপর ভালো কিছু হবে। বলা হল হে আবু বকর! হযরত আবু বকর ও হযরত ওমর রাযিয়াল্লাহু আনহুমা হতেও উত্তম!! তিনি বললেন তাকে কতিপয় নবীর উপরও মর্যাদা দেওয়া হবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০৩৬ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٣٦
حدثنا ضمرة عن ابن شوذب عن محمد بن سيرين
أنه ذكر فتنة
تكون فقال إذا كان ذلك فاجلسوا في بيوتكم حتى تسمعوا على الناس بخير من أبي بكر
وعمر رضى الله عنهما
قيل يا أبا بكر خير من أبي بكر وعمر
قال قد كان يفضل
على بعض الأنبياء
হযরত কাতাদা রাযিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন সে (মাহদী) খুজে গচ্ছিত সম্পদ বের করবে। এবং মাল সম্পদ বন্টন করে দিবে। আর ইসলামকে তার পাশ্ববর্তীর সাথে সাক্ষাত করাবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০৩৭ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٣٧
حدثنا عبد الرزاق عن معمر
عن قتادة قال قال رسول
الله صلى الله عليه وسلم إنه يستخرج الكنوز ويقسم المال ويلقي الإسلام بجرانه
হযরত আবু সাঈদ খুদরী রাযিয়াল্লাহু আনহু রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম হতে বর্ণনা করেন যে, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন তার উপর আকাশের অধিবাসীরা ও যমিনের অধিবাসীরা খুশি থাকবে। তোমরা আকাশের এক ফোঁটা চাইও না। তবে যা বর্ষণ করবে। এমনি ভাবে তোমরা যমিনের কাছে কিছু চাইও না। তবে যা উৎপন্ন করবে। এমনকি জীবিতরা মৃত্যুর আকাংখা করবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০৩৮ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٣٨
قال معمر وأخبرنا أبو هارون عن معاوية عن أبي الصديق الناجي
عن أبي
سعيد الخدري رضى الله عنه عن النبي صلى الله عليه وسلم قال يرضى عنه ساكن السماء
وساكن الأرض لا تدع السماء من قطرها شيئا إلا صبته ولا الأرض من نباتها شيئا إلا
أخرجته حتى يتمنى الأحياء ألا موات
হযরত আবু সাঈদ খুদরী রাযিয়াল্লাহু আনহু রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম হতে বর্ণনা করেন যে, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন সে এমন ভাবে মাল সম্পদ ছড়াবে। (মাল সম্পদ বন্টন করবে।) যে, বন্টনের ক্ষেত্রে গণনা করবে না। সে সারা পৃথীবিকে ন্যায় বিচার দ্বারা পরিপূর্ণ করে দিবে যেমনিভাবে সারা পৃথীবিতে অত্যাচার ও নিপিড়ন ভরে গিয়েছিল।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০৩৯ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٣٩
حدثنا الوليد عن سعيد عن قتادة عن
أبي نضرة
عن أبي سعيد الخدري رضى الله عنه عن النبي صلى الله عليه وسلم قال
يحثي المال حثيا لا يعده عدا يملأ الأرض عدلا كما ملئت جورا وظلما
হযরত আবু সাঈদ খুদরী রাযিয়াল্লাহু আনহু রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম হতে বর্ণনা করেন যে, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন তার নিকট তার ক্রিতদাসী আশ্রয় গ্রহণ করবে। যেমনিভাবে উপহার মোমের সাথে। সে পৃথীবিতে ন্যায় বিচার দ্বারা ভরে দিবে। যেমনিভাবে অত্যাচার জুলুম ভরে গিয়েছিল। এমনকি তারা তাদের প্রথম বিষয়ের মত হয়ে যাবে। ঘুমন্ত ব্যক্তির ঘুম ভাঙ্গবে না। আর রক্তপাতও হবে না।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০৪০ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٤٠
قال
الوليد عن أبي رافع إسماعيل بن رافع عمن حدثه
عن أبي سعيد الخدري عن النبي صلى
الله عليه وسلم قال تأوي إليه أمته كما تأوي النحلة يعسو بها يملأ الأرض عدلا كما
ملئت جورا حتى يكون الناس على مثل أمرهم الأول لا يوقظ نائما ولا يهريق دما
হযরত আবু সাঈদ খুদরী রাযিয়াল্লাহু আনহু রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম হতে বর্ণনা করেন যে, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন সে (মাহদী আলাইহিস সালাম) পৃথীবিকে ন্যায় বিচার দ্বারা পরিপূর্ণ করে দিবে। যেমনিভাবে এর পূর্বে পৃথীবিতে জুলুম অত্যাচারে ভরে গিয়েছিল। আর সে রাজত্ব করবে সাত বছর।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০৪১ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٤١
حدثنا ابن وهب عن الحارث بن نبهان عن عمرو بن زياد عن أبي نضرة
عن أبي سعيد عن النبي صلى الله عليه وسلم قال يملأ الأرض عدلا كما ملئت قبله
ظلما وجورا يملك سبع سنين
হযরত ইবরাহীম ইবনে মাইসারা হতে হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন আমি তাউসকে হযরত উমর ইবনে আব্দুল আযীয রহ. এর মাহদী হওয়ার ব্যাপারে বললাম। তখন তিনি বললেন না কারণ তিনি পৃথীবিতে পরিপূর্ণ ভাবে ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা করতে পারেন নাই।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০৪২ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٤٢
حدثنا سفيان عن إبراهيم بن ميسرة قال
قلت
لطاوس عمر بن عبد العزيز المهدي
قال لا إنه لم يستكمل العدل كله
হযরত ওয়ালীদ রাযিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন আমি এক ব্যক্তিকে এক সম্প্রদায়ের নিকট বর্ণনা করতে শুনলাম যে. তিনি বলেন মাহদী তিন জন। (প্রথম জন) মাহদীউল খাইর। (ভালোর পথ প্রদর্শক) আর সে হল উমর ইবনে আব্দুল আযীয। (দ্বিতীয় জন) মাহদীউদ দম ( রক্তপাতের পথ প্রদর্শক) আর সে হল ঐ ব্যক্তি যার উপর রক্ত প্রবাহিত হবে। (তৃতীয় জন) মাহদীউদ দ্বীন (দ্বীন বা ধর্মের পথ প্রদর্শক) আর সে হল হযরত ঈসা ইবনে মারিয়াম আলাইহিস সালাম। তার যমানায় তার দাসী তার নিকট আত্মসমর্পণ করবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০৪৩ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٤٣
حدثنا الوليد قال سمعت رجلا يحدث قوما فقال
المهديون ثلاثة مهدي الخير وهو عمر
بن عبد العزيز ومهدي الدم وهو الذي يسكن عليه الدماء ومهدي الدين عيسى بن مريم عليه
السلام تسلم أمته في زمانه
হযরত কা’ব রাযিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন মাহদীীউল খাইর (কল্যাণের পথ প্রদর্শক) সুফইয়নীর পর বের হবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০৪৪ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٤٤
قال الوليد بلغني عن كعب أنه قال مهدي الخير
يخرج بعد السفياني
হযরত তাউস হতে বর্র্র্র্র্র্ণিত যে, তিনি বলেন মাহদী আলাইহিস সালাম এহসানকারীর এহসাকে বাড়িয়ে বলবে। খারাব কাজ কারীর কাছে তার খারাব কাজের জন্য ক্ষমা চাওয়া হবে। আর সে কাজ করনেওয়ালার উপর মাল সম্পদ খরচ করবে। এবং মিসকীনদের উপর দয়া করবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০৪৫ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٤٥
حدثنا حميد الرؤاسي عن محمد بن مسلم عن إبراهيم بن
ميسرة
عن طاوس قال إذا كان المهدي زيد المحسن في إحسانه وتيب
على المسيء من
إساءته وهو يبذل المال على العمال ويرحم المساكين
হযরত ইবরাহীম ইবনে মাইসারা হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন হযরত তাউস বলেন আমি আশা করি যে, মহদীর সময় না পাওয়া পর্যন্ত মৃত্যু বরণ করবো না। এহসানকারীর এহসানকে বাড়ানো হবে। আর খারাব কাজ কারীর কাছে ক্ষমা চাওয়া হবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০৪৬ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٤٦
حدثنا ابن عيينة عن إبراهيم بن ميسرة قال
قال طاوس وددت أني لا
أموت حتى أدرك زمن المهدي يزاد المحسن في إحسانه ويتاب على المسيء
হযরত সাব্বাহ হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন মাহদী আলাইহিস সালামের সময়ে ছোটরা বড় হওয়ার আকাংখা করবে। আর বড়রা ছোট হওয়ার আকাংখা করবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০৪৭ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٤٧
حدثنا
رشدين عن ابن لهيعة عن أبي زرعة عن صباح
قال يتمنى في زمن المهدي الصغير أن
يكون كبيرا والكبير أن يكون صغيرا
হযরত আবু সাঈদ খুদরী রাযিয়াল্লাহু আনহু রাসূল সা হতে বর্ণনা করেন যে, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন মাহদী আলাইহিস সালামের সময়ে আমার উম্মতকে এমন নেয়ামত দেওয়া হবে যে, ঐরূপ নেয়ামত আর কখনো দেওয়া হয় নাই। আকাশ প্রচুর বর্ষণ করবে। আর যমিন ফসল উৎপন্ন করবে না। তবে যা বের করে। মাল সম্পদ হবে পদদলিতের মত। একজন লোক দাড়াবে এবং বলবে হে মাহদী! আমাকে দাও। অতপর সে বলবে গ্রহণ কর।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০৪৮ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٤٨
حدثنا محمد بن مروان عن عمارة بن أبي
حفصة عن زيد العمي عن أبي الصديق
عن أبي سعيد الخدري رضى الله عنه عن الني صلى
الله عليه وسلم قال تنعم أمتي في زمن المهدي نعمة لم ينعموا مثلها قط ترسل السماء
عليهم مدرارا ولا تزرع الأرض شيئا من النبات إلا أخرجته والمال كدوس يقوم الرجل
فيقول يا مهدي أعطني فيقول خذ
হযরত আবু সাঈদ রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম হতে ঐরূপই বর্ণনা করেছেন। তবে তিনি মাল সম্পদের কথা উল্লেখ করেন নাই।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০৪৯ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٤٩
حدثنا أبو معاوية عن موسى عن زيد عن أبي
الصديق عن أبي سعيد
عن النبي صلى الله عليه وسلم نحوه إلا أنه لم يذكر المال
হযরত সুলাইমান ইবনে ঈসা হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন আমার নিকট এখবর পৌছেছে যে, মাহদী আলাইহিস সালামের হাতে বুহাইরাতুত তাবরিয়্যাহ হতে তাবূত আস সাকীনা প্রকাশ পাবে। এমনকি বহন করা হবে। (বয়ে আনা হবে।) অতপর বাইতুল মুকাদ্দাসে তার সামনে রাখা হবে। যখন ইহুদিরা উহার দিকে দেখবে তখন তাদের অল্প সংখ্যাক ব্যতীত সবাই আত্মসমর্পণ করবে। (ইসলাম গ্রহণ করবে।) অতপর মাহদী আলাইহিস সালাম ইন্তেকাল করবেন।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০৫০ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٥٠
حدثنا يحيى بن سعيد العطار البصري عن سليمان بن عيسى قال
بلغني أنه
على يدي المهدي يظهر تابوت السكينة من بحيرة الطبرية حتى يحمل فيوضع بين يديه ببيت
المقدس فإذا نظرت إليه اليهود أسلمت إلا قليلا منهم ثم يموت المهدي
হযরত আবু মুহম্মাদ আহলে মাগরিব এর এক ব্যক্তি হতে বর্ণনা করে বলেন যে, যখন মাহদী আলাইহিস সালাম বের হবে। তখন আল্লাহ তা’আলা বান্দাদের অন্তরে ধনাঢ্যতা ঢেলে দিবেন। এমনকি মাহদী আলাইহিস সালাম বলবে. কে মাল চায়? অর্থাৎ কার মাল সম্পদের প্রয়োজন। তখন তার নিকট একজন ব্যতীত কেউ আসবে না। সে এসে বলবে, আমি। (আমার মাল সম্পদের প্রয়োজন।) অতপর তিনি বলবেন তুমি নিক্ষেপ কর। অতপর সে নিক্ষেপ করবে। অতপর সে উহা তার পিঠে বহন করবে। এমনকি যখন সে আসবে তখন মানুষ দূরে সরে যাবে। সে বলবে তোমরা কি আমাকে এখানে সব থেকে খারাপ মনে করছ? অতপর সে ফিরে আসবে। এবং তাকে মাল সম্পদ ফিরিয়ে দিবে। অতপর বলবে তুমি তোমার মাল রাখ। এতে আমার কোন দরকার নেই।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০৫১ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٥١
وحدثني غير واحد عن ابن عياش عن سالم بن عبد الله عن أبي محمد
عن رجل من أهل
المغرب قال إذا خرج المهدي ألقى الله تعالى الغنى في قلوب العباد حتى يقول المهدي
من يريد المال فلا يأتيه أحد إلا واحد يقول أنا فيقول احث فيحثي فيحمل على ظهره حتى
إذا أتى أقصى الناس قال ألا أراني شر من هاهنا فيرجع فيرده إليه فيقول خذ مالك لا
حاجة لي فيه
হযরত দীনার ইবনে দীনার হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন মাহদী আলাইহিস সালাম প্রকাশ পাবে আর যুদ্ধ লব্ধ মাল বন্টন করা হবে। আর তখন তার নিকট যা পৌছবে তা মানুষ একে অপরের মাঝে সহযোগীতা করবে। (বন্টনের ক্ষেত্রে)। সেখানে কাউকে কোন একজনের উপর প্রাধান্য দেওয়া হবে না। আর সে হক অনুযায়ী কাজ করবে। এমনকি সে মৃত্যু বরণ করবে। (মৃত্যু পর্যন্ত সে হক অনুযায়ী কাজ করবে।) আর উহার পর দুনিয়া উত্তেজিত হয়ে যাবে। (বিশৃংখল হয়ে যাবে।)
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০৫২ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٥٢
حدثنا عبد القدوس عن أبي بكر عن يزيد بن سليمان الرحبي
عن دينار بن دينار قال يظهر المهدي وقد تفرق الفيء فيواسي بين الناس فيما وصل
إليه لا يؤثر فيه أحدا على أحد ويعمل بالحق حتى يموت ثم تصير الدنيا بعده هرجا
হযরত আলী ইবনে আবু তালেব রাযিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন আল্লাহ তা’আলা মাহদী আলাইহিস সালামকে এক রাত্রে সংশোধন করবেন।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০৫৩ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٥٣
حدثنا القاسم بن مالك المزني عن ياسين بن سيار قال سمعت إبراهيم بن محمد
بن الحنفية قال حدثني أبي قال
حدثني علي بن أبي طالب رضى الله عنه قال قال رسول
الله صلى الله عليه وسلم المهدي يصلحه الله تعالى في ليلة واحدة
হযরত তাউস থেকে বর্র্ণিত যে, তিনি বলেন হযরত ওমর ইবনে খাত্তাব রাযিয়াল্লাহু আনহু ঘর জমা রাখলেন। অতপর বললেন তুমি কি মনে কর। আমি ঘরের সম্পদ এবং উহার মধ্যে অস্ত্র ও মাল সম্পদ হতে যা আছে তা জমা করবো। নাকি তা আমি আল্লাহ তা’আলার রাস্তায় ভাগ করে দিব। তখন হযরত আলী ইবনে আবু তালেব রাযিয়াল্লাহু আনহু বললেন হে আমীরুল মু’মিনীন! আপনি অতিবাহিত হন। (জমা করুন।) কারণ আপনি তার সাথী নন। কেননা তার সাথী হল কুরাইশের মধ্য থেকে আমাদের এক যুবক। আর সে শেষ যমানায় উহাকে আল্লাহ তা’আলার রাস্তায় ভাগ করে দিবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০৫৪ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٥٤
حدثنا ابن وهب عن إسحاق بن يحيى بن طلحة التيمي
عن طاوس قال ودع عمر بن الخطاب
رضى الله عنه البيت ثم قال والله ما أراني أدع خزائن البيت وما فيه من السلاح
والمال أم أقسمه في سبيل الله
فقال له علي بن أبي طالب رضى الله عنه امض يا
أمير المؤمنين فلست بصاحبه إنما صاحبه منا شاب من قريش يقسمه في سبيل الله في آخر
الزمان
হযরত জাবের ইবনে আব্দুল্লাহ রাযিয়াল্লাহু আনহুমা রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম হতে বর্ণনা করেন যে, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন আমার উম্মতের মধ্য হতে একজন খলীফা হবে। যিনি মাল এমনভাবে খরচ করবে যে, সে উহা গণনা করবেন না। (অগণিত ভাবে দান করবে।)
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০৫৫ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٥٥
حدثنا عبد الوهاب الثقفي عن الجريري عن أبي نضرة
عن جابر بن
عبد الله رضى الله عنهما عن النبي صلى الله عليه وسلم قال يكون في أمتي خليفة يحثى
المل حثيا ولا يعده عدا
হযরত আবু সাঈদ খুদরী রাযিয়াল্লাহু আনহু রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম হতে বর্ণনা করেন যে, রাসূল সা, বলেন আমার পরিবার হতে যমানায় কর্তনের সময় (শেষ যমানায়)। এবং যুদ্ধের প্রকাশের সময়। তার দানটা হবে নিক্ষেপের মত। তাকে সিফাহ বলা হবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০৫৬ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٥٦
حدثنا أبو معاوية عن الأعمش عن عطية
عن أبي
سعيد الخدري رضى الله عنه عن النبي صلى الله عليه وسلم قال يخرج رجل من أهل بيتي عن
انقطاع من الزمان وظهور من
الفتن
يكون عطاؤه حثيا يقال له السفاح
যামান ইবনে যুবাইর যিনি জাহেলিয়্যাহ আলামত হিসাবে পেয়েছেন। তার থেকে বর্ণিত যে, তিনি বলেন খেলাফত বাইতুল মুকাদ্দাসে অবতরণ করবে। তখন বাইয়াত এমন ধরনের হবে যে, ঐ ব্যক্তির জন্য তাদের মহিলা হালাল হবে যে সেখানে তাদের বাইয়াত গ্রহণ করবে। সে বলবে তাদের উপর তালাক অথবা মুক্ত হওয়া গ্রহণ করা হবে না।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০৫৭ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٥٧
حدثنا الوليد بن مسلم عن أبي عبدة
المشجعي عن أبي أمية الكلبي
عن شيخ حدثهم زمن ابن الزبير أدرك الجاهلية علامة
قال تنزل الخلافة بيت المقدس تكون بيعة هدى يحل لمن بايعه بها نساؤهم يقول لا يأخذ
عليهم بطلاق ولا عتق
হযরত কা’ব রাযিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন যখন তুমি বাইতুল মুকাদ্দাসে খলীফা দেথবে। এবং উহা ব্যতীত আরেক জায়গায় দেখবে তথা দামেস্কে। তখন উহা ব্যতীত অনুসরণ করিও না। কেননা সেটা হবে গাধার বংশধরের থেকেও নিম্ব।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০৫৮ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٥٨
حدثنا الوليد بن مسلم عن خير بن محمد الرعيني
قال أخبرني راشد مولانا عن تبيع
عن كعب قال إذا رأيت خليفة ببيت المقدس وآخر
دونه يعني بدمشق فلا تتبع دونه فإنه أضل من حمار أهله
হযরত আবু হুরাইরা রাযিয়াল্লাহু আনহু রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম হতে বর্ণনা করেন যে, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন অতপর বাইতুল মুকাদ্দাসে যে খলীফা থাকবে যে উহা ব্যতীত তাকে হত্যা করা হবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০৫৯ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٥٩
قال الوليد
فأخبرني بلال العكي عن يحيى بن أبي عمرو السيباني عن عبد الجبار الأزدي
عن أبي
هريرة رضى الله عنه عن النبي صلى الله عليه وسلم قال فيقتل الخليفة الذي ببيت
المقدس الذي دونه
হযরত আরতাত থেকে বর্র্ণিত যে, তিনি বলেন প্রথম যে পতাকা যা মাহদী আলাইহিস সালাম গ্রহণ করবে তা সে তুর্কের দিকে পাঠাবে। অতপর তাদের পরাজিত করবে। এবং তাদের সাথে বন্দি ও মাল সম্পদ থেকে যা থাকবে তা গ্রহণ করবে। অতপর সিরিয়ার দিকে সফর করবে। অতপর তা বিজয় করবে। অতপর তার সাথে থাকা প্রত্যেক মালিকানাধীনকে মুক্ত করে দিবে। আর তার সাথীদের তাদের মূল্য দিয়ে দিবে।

[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ১০৬০ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ١٠٦٠
حدثنا الحكم بن نافع عن جراح عن أرطاة قال أول لواء
يعقده المهدي يبعثه إلى الترك فيهزمهم ويأخذ ما معهم من السبي والأموال ثم يسير إلى
الشام فيفتحها ثم يعتق كل مملوك معه وأعطى أصحابه قيمهم
صفة المهدي ونعته

Execution time: 0.06 render + 0.00 s transfer.