Login | Register

নুয়াইম বিন হাম্মাদের: আল ফিতান

মাহদি আসার আগের শেষ নিদর্শন

   

মাহদি আসার আগের শেষ নিদর্শন

Double clicking on an arabic word shows its dictionary entry
হযরত সাঈদ ইবনে মুসাইয়িব রাযিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন একটা যুদ্ধ হবে। যার শুরুতে থাকবে ছোটদের খেলাধুলা। (ছোটদের খেলা থেকেই যুদ্ধ শুরু হবে।) যুদ্ধটি এমন হবে যে, এক দিক দিয়ে থামলে আরেক দিক দিয়ে (যুদ্ধের আগুণ) প্রজ্জলিত হয়ে উঠবে। যুদ্ধ শেষ হবে না,্ এমতবস্থায় আকাশ থেকে এক সম্বোধনকারী সম্বোধন করে বলবে- অমুক ব্যক্তি নেতা। আর ইবনুল মুসাইয়িব তার দুই হাত গুটাবেন ফলে তার হাত দুটো সংকুচিত হয়ে যাবে। অতপর তিন বার বললেন সেই আমীর বা নেতাই সত্য।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৯৭৩ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ٩٧٣
حدثنا ابن
المبارك وعبد الرزاق عن معمر
عن رجل عن سعيد بن المسيب قال تكون فتنة كان أولها
لعب الصبيان كلما سكنت من جانب طمت من جانب
فلا تتناهى حتى ينادي مناد من السماء
ألا أن الأمير فلان وفتل ابن المسيب يديه حتى إنهما لتنقصان فقال ذلكم الأمير حقا
ثلاث مرات
হযরত আবু জা’ফর রাযিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন একজন সম্বোধনকারী আকাশ থেকে সম্বোধন করে বলবে হযরত মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এর পরিবারবর্গে সত্যত রয়েছে। আরেকজন সম্বোধনকারী যমিন থেকে সম্বোধন করে বলবে যে, হযরত ঈসা আলাইহিস সালামের পরিবারবর্গে সত্যতা রয়েছে। অথবা ইবেন আব্বাস রাযিয়াল্লাহু আনহু বলেন আমি এব্যাপারে সন্দিহান। আর নিচের আওয়াজ টা হবে শয়তানের। আর সেটা মানুষদেরকে সন্দেহের মধ্যে ফেলে দিবে। আবু আব্দুল্লাহ নাঈম সন্দেহ করেছে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৯৭৪ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ٩٧٤
حدثنا سعيد أبو عثمان عن جابر
عن أبي جعفر قال
ينادي مناد
من السماء
ألا إن الحق في آل محمد وينادي مناد من الأرض ألا إن الحق في آل عيسى أو
قال العباس أنا أشك فيه وإنما الصوت الأسفل من الشيطان ليلبس على الناس شك أبو عبد
الله نعيم
ইবনে শিহাব থেকে বর্ণিত যে, তিনি বলেন দ্বিতীয় আবু সুফিয়ানের পরিবারবর্গের থেকে একজন ব্যক্তিকে মাওসেম নামক এলাকার আমীর বা নেতা বানানো হবে। অতপর তার সাথে এক সৈন্যদল প্রেরণ করা হবে। অতপর তারা যখন মাওসেম নামক এলাকায় থাকবে তখন তারা আকাশ হতে এক সম্বোধনকারীর আওয়াজ শুনবে। (সম্বোধনকারী বলবে) তোমরা ভালভাবে জেনে রাখ যে, আমীর বা নেতা হল অমুক। আরেকজন সম্বোধনকারী যমিন থেকে সম্বোধন করে মিথ্যা বলবে। আকাশ থেকে সম্বোধনকারী সম্বোধন করে সত্য কথা বলবে। এভাবে বিষয়টি দীর্ঘ হবে। ফলে তারা উপলব্ধি করতে পারবে না যে, তারা কার অনুসরণ করবে। আর প্রকুতপক্ষে সত্য কথা বলবে যে সম্বোধনকারী আকাশে থাকবে। তার দ্বিতীয় আওয়াজটা যা সে আকাশ থেকে সম্বোধন করে প্রথম বার বলবে। যখন তোমরা উহা শুনবে তখন তোমরা ভালভাবে স্বরণ রাখবে যে. আল্লাহ তা’আলার কালিমা বা কথা হল উচ্চ। আর শয়তানের কালিমা হল নিচ।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৯৭৫ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ٩٧٥
حدثنا الوليد بن مسلم عن شيخ عن ابن شهاب
قال
يؤمر من آل
أبي سفيان الثاني
أمير على الموسم ويبعث معه بعثا فإذا كانوا بالموسم
سمعوا مناديا
من السماء
إلا إن الأمير فلان وينادي مناد من الأرض كذب وينادي مناد من السماء صدق
فيطول ذلك فلا يدرون أيهما يتبعون وإنما يصدق [ من في السماء الصوت الثاني الذي
ينادي من السماء أول مرة فإذا سمعتم ذلك فاعلموا أن كلمة الله هي العليا وكلمة
الشيطان هي السفلى
হযরত আব্দুর রহমান তার মাতা থেকে বর্ণনা করেন, তার মাতা ছিনের বৃদ্ধা। তিনি বলেন আমি (আমার মাতাকে) ইবনে যুবাইরের যুদ্ধের কথা বললাম যে, এটা এমন একটি যুদ্ধ যাতে মানুষ হালাক বা বরবাদ হয়েছে। তখন তিনি আমাকে বললেন হে বৎস! কখনো নয়। বরং উহার পরে এমন এক যুদ্ধ হবে (অনেক) মানুষ বরবাদ হবে। তাদের যুদ্ধ থামবে না, আর এরই মাঝে আকাশ থেকে এক সম্বোধনকারী সম্বোধন করে বলবে তোমাদের উপর অমুক ব্যক্তি। (তোমাদের আমীর অমুক ব্যক্তি।)
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৯৭৬ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ٩٧٦
حدثنا ابن وهب عن إسحاق عن يحيى التيمي عن المغيرة
بن عبد الرحمن
عن أمه وكانت قديمة قال قلت لها في فتنة ابن الزبير إن هذه
الفتنة يهلك فيها الناس
فقالت كلا
يا بني ولكن بعدها فتنة يهلك فيها الناس لا يستقيم أمرهم حتى ينادي مناد من السماء
عليكم بفلان
হযরত ইবনুল মুসাইয়িব রাযিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন সিরিয়ায় একটি যুদ্ধ হবে। যার শুরুটা হবে শিশুদের খেলাধূলা (দিয়ে)। অতপর তাদের এযুদ্ধ কোন ভাবেই থামবে না। আর তাদের কোন দলও থাকবে না। এমনকি আকাশ থেকে এক সম্বোধনকারী সম্বোধন করে বলবে, তোমাদের উপর অমুক ব্যক্তি। (তোমাদের আমীর অমুক ব্যক্তি।) এবং সুসংবাদদাতার হাত উথিত হবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৯৭৭ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ٩٧٧
حدثنا ابن وهب عن إسحاق بن يحيى عن محمد بن بشر بن هشام
عن ابن المسيب قال تكون فتنة بالشام كان أولها لعب الصبيان ثم لا يستقيم أمر
الناس على شيء ولا تكون لهم جماعة حتى ينادي منادي من السماء عليكم بفلان وتطلع كف
بشير
হযরত ইবনুল মুসাইয়িব রাযিয়াল্লাহু আনহু হতে এরূপই বর্ণিত হয়েছে। তবে তিনি (স্পষ্ট করে) বলেছেন যে, আকাশ থেকে একজন সম্বোধনকারী সম্বোধন করে বলবে যে, তোমাদের আমীর বা নেতা অমুক।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৯৭৮ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ٩٧٨
حدثنا ابن وهب عن عياض بن عبد الله الفهري عن محمد بن يزيد بن
المهاجر
عن ابن المسيب نحوه إلا أنه قال ينادي منادي من السماء أميركم فلان
হযরত মুহাম্মাদ ইবনে মুনকাদির হযরত আব্দুল মালিক ইবনে মারওয়ানে কে তাদের আলেমদের এক ব্যক্তি থেকে এরূপই (৯৭৮ নং হাদীস) বর্ণনা করতে শুনেছেন।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৯৭৯ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ٩٧٩
قال عياض وأخبرنا محمد بن المنكدر سمع عبد الملك بن مروان يذكر عن رجل من
علمائهم نحوه
হযরত শাহর ইবনে হাওসাব হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম মুহাররামে বলেছেন আকাশ থেকে একজন সম্বোধনকারী সম্বোধণ করে বলবে- তোমরা ভালভাবে জেনে রাখ যে, আল্লাহ তা’আলার সৃষ্টি জগতে তার শ্রেষ্ঠাংশ হল অমুক। সুতরাং তোমরা তার কথা শোন ও তাকে আওয়াজ ও হট্টগোলের (যুদ্ধের) বছরে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৯৮০ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ٩٨٠
حدثنا الوليد بن مسلم عن عنبسة القرشي عن مسلمة بن أبي سلمة
عن شهر بن حوشب قال
قال رسول الله صلى الله عليه وسلم
في المحرم ينادي مناد من
السماء
ألا إن صفوة الله من خلقه فلانا فاسمعوا له وأطيعوا
في سنة الصوت والمعمعة
হযরত আম্মার ইবনে ইয়াসির রাযিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত যে, যখন নিঃপাপ আত্মা ও তার ভাইকে হত্যা করা হবে। তাদের হত্যা করা হবে মক্কার এক ছোট গ্রামে। আকাশ থেকে এক সম্বোধকারী সম্বোধন করে বলবে নিশ্চই তোমাদের আমীর হল অমুক। আর সে হল মাহদী আলাইহিস সালাম । যিনি সমস্ত পৃথীবিকে সত্য ও ন্যায় দ্বারা পরিবপূর্ণ করে দিবেন।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৯৮১ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ٩٨١
حدثنا رشدين عن ابن لهيعة قال حدثني أبو زرعة عن عبد الله بن زرير
عن عمار بن ياسر رضى الله عنه قال إذا
قتل النفس الزكية وأخو
ه يقتل بمكة ضيعة
نادى مناد من السماء
إن أميركم فلان وذلك المهدي الذي يملأ الأرض حقا وعدلا
হযরত সাঈদ ইবনে মুসাইয়িব রাযিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন (পৃথীবিতে) অনেক দল ও মতানৈক্যতা হবে। এমনকি আকাশে হাতের তালু উদিত হবে। আর একজন সম্বোধনকারী সম্বোধন করে বলবে তোমরা ভালভাবে জেনে রাখ যে, নিশ্চই তোমাদের আমীর বা নেতা হল অমুক।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৯৮২ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ٩٨٢
حدثنا أبو إسحاق الأقرع حدثني أبو الحكم المدني قال حدثني يحيى بن سعيد
عن
سعيد بن المسيب قال تكون فرقة واختلاف
حتى يطلع كف من السماء
وينادي مناد ألا أن
أميركم فلان
হযরত আলী রাযিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন ভূমি ধসের পর আকাশ হতে একজন সম্বোধনকারী দিনের প্রথমভাগে সম্বোধন করে বলবে নিশ্চই হযরত মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এর পরিবারবর্গের মাধ্যে সত্যতা রয়েছে। অতপর আরেকজন সম্বোধনকারী দিনের শেষাংশে সম্বোধন করে বলবে নিশ্চই সত্যতা রয়েছে হযরত ঈসা আলাইহিস সালামের বংশধরের মধ্যে। এর সেটা তার অনুরূপ হবে শয়তােেনর থেকে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৯৮৩ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ٩٨٣
حدثنا الوليد ورشدين عن ابن لهيعة عن أبي قبيل عن أبي رومان
عن علي رضى الله عنه قال
بعد الخسف ينادي مناد من السماء
إن الحق في آل محمد
في
أول النهار
ثم ينادي مناد في آخر النهار إن الحق في ولد عيسى وذلك نحوه من الشيطان
হযরত যুহরী থেকে বর্ণিত যে, তিনি বলেন যে, যখন সুফইয়ানী ও মাহদী আলাইহিস সালামের দল যুদ্ধের জন্য একত্রিত হবে। সেদিন আকাশ থেকে একটা আওয়াজ শোনা যাবে। আর তা হল তোমরা ভালভাবে জেনে রাখ যে, নিশ্চই আল্লাহ তা’আলার বন্ধুরা হল অমুক ব্যক্তির সাথি। অর্থাৎ মাহদী আলাইহিস সালামের সাথি। হযরত যুহরী বলেন হযরত আসমা বিনতে উমাইস বলেন সেদিনের আলামত হল সেদিন আকাশে হাতের তালু ঝুলন্ত থাকবে। যা মানুষ দেখতে থাকবে। (প্রকৃতিক নির্দশন থাকবে।)
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৯৮৪ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ٩٨٤
حدثنا عبد الله بن مروان عن سعيد بن يزيد التنوخي
عن الزهري قال إذا
التقى السفياني والمهدي للقتال يومئذ
يسمع صوت من السماء
ألا إن أولياء الله أصحاب
فلان يعني المهدي
قال الزهري وقالت أسماء بنت عميس إن أمارة ذلك اليوم أن
كفا
من السماء
مدلاة ينظر إليها الناس
হযরত আরতাত থেকে বর্ণিত যে, তিনি বলেন যখন মানুষ মিনা ও আরাফাতে থাকবে এবং সেখানে গোত্র দলভূক্ত হওয়ার পর একজন সম্বোধনকারী সম্বোধন করে বলবে- তোমরা ভালভাবে জেনে রাখ যে, তোমাদের আমীর বা নেতা হল অমুক। আর ইহার পরপরই আরেকটি আওয়াজ হবে। যাতে বল হবে- তোমরা ভালভাবে জেনে রাখ যে, সে মিথ্যা বলছে। এবং ইহার পরপরও আরেকটি আওয়াজ হবে। যাতে বলা হবে- যে সে (প্রথম আওয়াজ) সত্য বলেছে। অতপর তারা ভীষণ যুদ্ধ করবে। অতপর বারাযেআ’ এর অস্ত্র সস্ত্র মহিমান্বিত হবে। আর সেটা হল বারাযেআ’ এর সৈন্য। আর ঐ সময় তারা আকাশে শিক্ষা দানকারী হাতের তালু দেখবে। অতপর তাদের যুদ্ধ ভীষণাকার ধারণ করবে। এমনকি আহলে বদরের (বদর যুেেদ্ধর মুসলমানদের সংখ্যার) পরিমান ব্যতীত সত্যের সাহায্যকারী এক জনও জীবিত থাকবে না। অতপর তারা চলে যাবে। এমনকি তাদের সাথির নিকট বাইয়াত গ্রহন করবে।

[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৯৮৫ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ٩٨٥
حدثنا الحكيم بن نافع عن جراح
عن أرطاة قال إذا كان الناس بمنى وعرفات
نادى مناد
بعد أن تحازب القبائل ألا إن
أميركم فلان ويتبعه صوت آخر ألا إنه قد كذب ويتبعه صوت آخر ألا أنه قد صدق فيقتتلون
قتالا شديدا فجل سلاحهم البراذع وهو جيش البراذع و
عند ذلك ترون كفا معلمة في السماء
ويشتد القتال حتى لا يبقى من أنصار الحق إلا عدة أهل بدر فيذهبون حتى يبايعون
صاحبهم
إجتماع الناس بمكة وبيعتهم للمهدي فيها وما يكون تلك السنة بمكة من
الاختلاط والقتال وطلبهم المهدي بعد القتال واجتماعهم عليه

Execution time: 0.04 render + 0.00 s transfer.