Login | Register

নুয়াইম বিন হাম্মাদের: আল ফিতান

সুফিয়ানি আর তালর দলের কুফায় প্রবেশ

   

সুফিয়ানি আর তালর দলের কুফায় প্রবেশ

Double clicking on an arabic word shows its dictionary entry
হযরত কা’ব রাযিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন মিসরে ধ্বংসযজ্ঞ হওয়া পর্যন্ত কূফা ধ্বংসযজ্ঞ হতে নিরাপদ থাকবে। হযরত হেকাম সফওয়ান থেকে বর্ণনা করে তার হাদীসে বলেন যে, আমার নিকট ঐ ব্যক্তি বর্ণনা করেছে, যে হযরত কা’ব রাযিয়াল্লাহু আনহু কে একথা বলতে শুনেছে যে, কূফাতে চামড়ার মত মিলিয়ে দেওয়া হবে। অতপর কূফার পর বড় যুদ্ধ সংগঠিত হবে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৮৯২ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ٨٩٢
حدثنا عبد القدوس
وبقية والحكم بن نافع عن صفوان ابن عمرو عن عبد الرحمن بن جبير
عن كعب قال
الكوفة آمنة من الخراب حتى تخرب مصر
قال الحكم في حديثه عن صفوان قال حدثني من
سمع كعبا يقول تعرك الكوفة عرك الأديم ثم الملحمة العظمى بعد الكوفة
হযরত আরতাত রাযিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত যে, তিনি বলেন সুফইয়ানী কূফায় প্রবেশ করবে। অতপর কূফাকে তিন দিন ঘেরাও করে রাখবে। আর সেখানের ষাট হাজার অধিবাসীকে হত্যা করবে। অতপর সেখানে আঠারো লাত অবস্থান করবে। সেখানে কূফার মাল সম্পদ ভাগাভাগি করে নিবে। আর মক্কায় তার প্রবেশ ঘটবে তূর্ক, রোম, ও কিরকিসিয়ায় যুদ্ধের পর। অতপর তাদের পরবতীদের প্রভাত তাদের উপর উদিত হবে। অতপর তাদের থেকে এক দল খোরাসানে ফিরে যাবে। অতপর সুফইয়ানীর সৈন্য যুদ্ধ করবে। এবং দূর্গ সমূহ ধ্বংস করে দিবে। এমনকি তারা কূফায় প্রবেশ করবে। আর খোরাসান বাসীদের খুজবে। আর খোরাসানে এমন এক দলের অবির্ভাব ঘটবে যারা মাহদী আলাইহিস সালামের দিকে আহবান করবে। অতপর সুফইয়ানী মদীনার দিকে প্রেরণ করবে। অতপর মহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এর বংসধরের থেকে এক গোষ্ঠিকে পাকড়াও করবে। এবং তাদের কূফায় ফেরত পাঠাবে। অতপর মাহদী আলাইহিস সালাম ও মানসূর কূফা থেকে পালায়ন করে বের হবে। আর সুফইয়ানী তাদের দুই জনকে অনুসন্ধানের জন্য সৈন্য প্রেরণ করবে। অতপর যখন মাহদী আলাইহিস সালাম ও মানসূর মক্কায় পৌছবেন তখন সুফইয়ানীর দলটি একটি খোলা প্রান্তরে অবস্থান নিবে। অতপর উক্ত প্রান্তর সুফইয়ানীর সৈন্য সহকারে ধসে যাবে। অতপর মাহদী আলাইহিস সালাম বের হবেল এবং মদীনা দিয়ে অতিক্রম করবেন। আর মদীনায় অবস্থানরত বনু হাশেমের লোকদেরকে রক্ষা করবেন। এবং কৃষ্ণবর্ণের সৈন্যদল সামনে অগ্রসর হবে। এমনকি দলটি মা-এ অবস্থান করবে। অতপর যারা সুফইয়ানীর সৈন্যদের থেকে কূফায় থাকবে তাদের নিকট তাদের অবস্থানের খবর পৌছবে। ফলে তারা ভেগে যাবে। অতপর তারা কূফায় অবস্থান নিবেন। এবং কূফায় বনূ হাশেমের যারা থাকবে তাদেরকে রক্ষা করবেন। এদিকে কূফার অনেক সংখ্যকের মধ্য থেকে একটি দল বের হবে যাদেরকে আ’সব বলা হবে। তাদের নিকট বেশী অস্ত্র বা হাতিয়ার থাকবে না। আর তাদের মাঝে বসরার অধিবাসীদের ছোট একটি দল থাকবে। অতপর তারা সুফইয়ানীর সাথীদেরকে পাবে। অতপর তাদের হাত থেকে কূফা থেকে বন্দিকৃত কয়েদি দের রক্ষা করবে। অতপর কৃষ্ণবর্ণের দলটি বাইয়াত নিয়ে মাহদী আলাইহিস সালামের দিকে প্রেরণ করবে।** বনু আব্বাসের দলের পর মাহদী আলাইহিস সালামের কালো ঝান্ডাবাহী দল। আর কি ঘটবে তাদের, সুফইয়ানীর সাথীদের ও আব্বাসীদের মাঝে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৮৯৩ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ٨٩٣
حدثنا الحكم بن نافع عن جراح
عن أرطاة قال يدخل السفياني الكوفي فيسبيها ثلاثة
أيام ويقتل من أهلها ستين ألفا ثم يمكث فيها ثمانية عشر ليلة يقسم أموالها ودخوله
مكة بعدما يقاتل الترك والروم بقرقيسيا ثم ينفتق عليهم [ من ] خلفهم فتق فترجع
طائفة منهم إلى خراسان فيقتل خيل السفياني ويهدم الحصون حتى يدخل الكوفة ويطلب أهل
خراسان ويظهر بخراسان قوم يدعون إلى المهدي ثم يبعث السفياني إلى المدينة فيأخذ
قوما من آل محمد حتى يرد بهم الكوفة ثم يخرج المهدي ومنصور من الكوفة هاربين ويبعث
السفياني في طلبهما فإذا بلغ المهدي ومنصور مكة نزل جيش السفياني البيداء فيخسف بهم
ثم يخرج المهدي حتى يمر بالمدينة فيستنقذ من كان فيها من بني هاشم وتقبل الرايات
السود حتى تنزل على الماء فيبلغ من بالكوفة من أصحاب السفياني نزولهم فيهربون ثم
ينزل الكوفة حتى يستنقذ من فيها من بني هاشم ويخرج قوم من سواد الكوفة يقال
لهم العصب ليس معهم سلاح إلا قليل وفيهم نفر من أهل البصرة فيدركون أصحاب السفياني
فيستنفذون ما في أيديهم من سبي الكوفة وتبعث الرايات السود بالبيعة إلى المهدي
الرايات السود للمهدي بعد رايات بني العباس وما يكون بينهم وبين أصحاب السفياني والعباسي

Execution time: 0.02 render + 0.00 s transfer.