Login | Register

নুয়াইম বিন হাম্মাদ: আল ফিতান

Double clicking on an arabic word shows its dictionary entry
হযরত আবু জা’ফর রাযিয়াল্লাহু আনহু ঘতে বর্ণিত যে, সুফইয়ানী কূফা ও বাগদাদে প্রবেশের পর তার সৈন্যদলকে বিভিন্ন দিকে পাঠাবে। তখন নদীর অন্যদিক হতে তার দলের একটি শাখা খোরসানবাসীদের থেকে তার নিকটে পৌছবে। অতপর পূর্বাঞ্চলের অধিবাসীরা তাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধের জন্য অগ্রসর হবে। আর তারা তাদের সৈন্য সহকারে যাবে। অতপর যখন তার নিকট উক্ত খবর পৌছবে, তখন সে ইস্তাখাররায় বিশাল এক সৈন্য প্রেরণ করবে। উক্ত সৈন্য দলে বনু উমাইয়ার এক ব্যক্তি থাকবে। আর কাওমাস, দাওলাতুর রাই এবং তাখূমুয যারীহ নামক এলাকা সমূহে তাদের ঘটনা ঘটবে অর্থাৎ যুদ্ধ হবে। আর ঐ সময় সুফইয়ানী কূফাবাসী ও মদীনা বাসীদের হত্যার আদেশ দিবে। আর তখনই খোরাসান হতে কালো ঝান্ডাবাহী দল অগ্রসর হবে। আর সমস্ত মানুষের উপর বনু হাশেমের এক যুবক থাকবে। তার ডান হাতে থাকবে বন্ধুত্ব বা কার্য সম্পাদনের শক্তি। আল্লাহ তা’আলা তার সমস্ত বিষয় ও সকল রাস্তা সহজ করে দিবেন। অতপর খোরাসানের তাখূম নামক এলাকায় তাদেও একটা যুদ্ধ হবে। অতপর হাশেমী ব্যক্তি রাঈ এর পথে যাত্রা করবে। অতপর বনু তামিমের এক ব্যক্তি মাওয়াল থেকে বের হয়ে ইস্তাখাররা এর দিকে উমাইয়াদের দিকে চলে যাবে। যাকে শুয়াইব ইবনে সালেহ বলা হবে। অতপর ইস্তাখাররা এর বাইযা নামক স্থানে তার, মাহদী আলাইহিস সালামের এবং হাশেমী ব্যক্তির মাঝে সাক্ষাত ঘটবে। আর তখন তাদেও দুয়ের মাঝে কঠিন যুদ্ধ হবে। ফলে ঘোড়ার পায়ের গোড়ালির গিট পর্যন্ত রক্তে রঙ্গিন হয়ে যাবে। অতপর তার নিকট সিজিস্তান থেকে বড় একটি দল আসবে। উক্ত দলের উপর বনু আদি এর এক ব্যক্তি থাকবে। অতপর আল্লাহ তা’আলা তার সাহায্য ও তার সৈন্য প্রকাশ করবেন। রাঈ এর দুটি যুদ্ধের পর মাদায়েনে একটি যুদ্ধ হবে। আর আকের কূফাতে সীলীমার যুদ্ধ হবে। যার ব্যাপারে প্রত্যেক মুক্তিপ্রান্ত খবর দিবে। উক্ত ঘটনার পর বাকেল নামক স্থানে বড় হত্যাযজ্ঞ অনুষ্ঠিত হবে এবং যমিনের দুই অংশের কোন এক অংশে যুদ্ধ হবে। অতপর সংকীর্ণ চোখ বিশিষ্টদের উপর তাদের কালো বর্ণদের থেকে একটি জাতি বের হবে। তারা হবে একটি দল। তাদের অধিকাংশ হবে কূফা ও বসরা হতে। এমনকি তারা তার হাতে দুই কূফার যে কয়েদী থাকবে তা রক্ষা করবে।** মৌলিক থেকে চতূর্থ অধ্যায়ের শেষাংশ যা তেলাওয়াত হবে পঞ্চমে।
[ আল ফিতান: নুয়াইম বিন হাম্মাদ - ৯১৩ ]
___________________________________
نعيم بن حماد - ٩١٣
حدثنا سعيد أبو
عثمان عن جابر عن أبي جعفر قال يبث السفياني جنوده في ألآفاق بعد دخوله الكوفة
وبغداد فيبلغه فرعه من وراء النهر من أهل خراسان فيقبل أهل المشرق عليهم قتلا ويذهب
بجيشهم فإذا بلغه ذلك بعث جيشا عظيما إلى اصطخر عليهم رجل من بني أمية فيكون لهم
وقعة بقومس ووقعة بدولات الري ووقعة بتخوم زريح فعند ذلك يأمر السفياني بقتل أهل
الكوفة وأهل المدينة عند ذلك تقبل الرايات السود من خراسان على جميع الناس شاب من
بني هاشم بكفه اليمنى خال يسهل الله أمره وطريقه ثم تكون له وقعة بتخوم خراسان
ويسير الهاشمي في طريق الري فيسرح رجل من بني تميم من الموال يقال له شعيب بن صالح
إلى اصطخر إلى الأموي فيلتقي هو والمهدي والهاشمي ببيضاء اصطخر فتكون بينهما ملحمة
عظيمة حتى تطأ الخيل الدماء إلى أرساغها ثم تأتيه جنود من سجستان عظيمة عليهم رجل
من بني عدي فيظهر الله أنصاره وجنوده ثم تكون وقعة بالمدائن بعد وقعتي الري وفي
عاقر قوفا وقعة صيليمة يخبر عنها كل ناج ثم يكون بعدها ذبح عظيم بباكل ووقعة في أرض
من أرض نصيبين ثم يخرج على الأخوص قوم من سوادهم وهم العصب عامتهم من الكوفة
والبصرة حتى يستنفذوا ما في يديه من سبي كوفان

Execution time: 0.04 render + 0.00 s transfer.