Login | Register

আল বিদায়া ওয়ান্নিহায়া - খন্ড ৯

পৃষ্ঠা ২৯৪ ঠিক করুন

হাসান ইবন মুহাম্মাদ আল হানাফিয়্যাহ্১
বিশিষ্ট তাবিঈ ৷ বলা হয় তিনিই সর্বপ্রথম ইরজ্বা২ বিষয়ে কথা বলেন ৷ আবু উবায়দের এই
বক্তব্য বর্ণিত হয়েছে যে, তিনি পচানব্বই হিজরীতে ইনৃতিকাল করেন ৷ খলীফা উল্লেখ
করেছেন, তিনি উমর ইবন আবদুল আযীয়ের খিলাফতকালে ইনৃতিকাল করেন ৷ আর আমাদের
শায়খ যাহাবী আলআলাম গ্রন্থে উল্লেখ করেছেন যে, তিনি এ বছর ইনৃতিকাল করেন ৷ মহান
আল্লাহ্ অধিক জানেন ৷

ওৰুাব্দুল্লাহ্ ইবন মৃহায়রীয ইবন জুনাদা ইবন উবায়দং

ইনি আবদুল্লাহ্ ইবন মুহায়রীয ইবন জুনাদা ইবন উবায়দ আল-কুরাশী আল-জুমাহী
আলমাকী ৷ বায়তুল মাকদিসে দীর্ঘ মীআদে ই তিকাফকারী বিশিষ্ট তাবিঈ ৷ ইনি মুয়ায্যিন
আবু মাহবুরার সৎ পিতা হতে এবং উবাদাহ্ ইবনুস সামিত, আবু সাঈদ ও মুআবিয়া প্রমুখ
থেকে হাদীস রিওয়ায়াত করেছেন ৷ আর তার থেকে রিওয়ায়াত করেছেন খালিদ ইবন মাদান,
মাকহ্রল হাসসান ইবন আতিয়্যাহ্, যুহ্রী-ৰু ও অন্যরা ৷ একাধিক ইমাম তাকে নির্ভরযোগ্য আখ্যা
দিয়েছেন এবং একদল তার প্রশংসা করেছেন ৷ এমনকি রাজা ইবন হায়ওয়া তো তার সম্পর্কে
বলেছেন, পবিত্র মদীনাবাসী যদি তাদের আবিদ ইবন উমরকে নিয়ে আমাদের সাথে বড়াই
করে, তাহলে আমরাও আমাদের আবিদ আবদুল্লাহ্ ইবন ঘুহায়রীযকে নিয়ে তাদের সাথে পর্ব
করতে পারি ৷ তার এক ছেলে বলেন, তিনি প্রতি সপ্তাহে একবার কুরআন খতম করতেন ৷ তার
জন্য বিছান ৷ বিছানাে হতো ৷ কিন্তু তিনি তাতে ঘুমাতেন না ৷ ঐতিহাসিকগণ বলেন, তিনি
ছিলেন বাক্সংযমী এবং গােলযােগ, বিশৃগ্রলা পরিহারকারী ৷ তিনি সর্বদা সৎ কাজের আদেশ
দিতেন ও মন্দ কাজে নিষেধ করতেন এবং কখনও নিজের কোন সদগুণের উল্লেখ করতেন না ৷
কোন এক আমীরের পরনে ব্লেশমের পোশাক দেখে তিনি তার সমালোচনা করলেন ৷ সেই
ব্যক্তি আর্মীরুল মু’মিনীন আবদুল মালিক ইবন মারওয়ানের দিকে ইঙ্গিত করে বলল, আমি
তাে এদের ভরের কারণে তা পরিধান করি ৷ তখন ইবন মুহায়রীয তাকে বললেন, কোন
মাখলুকের প্রতি তোমার ভয়কে আল্লাহর প্রতি ৩ভয়ের সমকক্ষ করে৷ না ৷ ইমাম আওযাঈ (র)
বলেন, যদি কেউ কাউকে অনুসরণকরতে চায়, তাহলে তার মত ব্যক্তির অনুসরণ করুক ৷
কেননা-, এমন উষ্মতকে আল্পাহ্ গোমরাহ করতে পারেন না যাদের মাঝে তার মত ব্যক্তি
বিদ্যমান ৷ কেউ কেউ বলেন, তিনি থলীফা ওয়ালীদেয় খিলাফতকালে ইনৃতিকাল করেন ৷ ধ্

১ পুর্বে উল্লিখিত হয়েছে ৷
২ মতবাদ বিশেষ ৷ যার অনুসারীরা কোন মুসলমানের ব্যাপারে চুড়াহুৰু কোন সিদ্ধান্ত প্রদান করে না বরং
তাদের ফায়সালাকে কিয়ামত দিবস পর্যন্ত বিলম্বিত করে ৷ তাদের ভাষ্য হলো, ঈমান থাকা অবস্থায় কোন
নাফরমানী কোন ক্ষতি করে না এবং কাফির অবস্থায় কোন আনুগত্য কোন উপকার করে না ৷ অনুবাদক
৩ আন-ইসাবা ৬৬৩৩, আল-ইসতীআর্ব ১৬৫২ উসদুলপাবা, ৩২৫২, তারীখুল ইসলাম ন্৪২১ , তারীখুল
বৃখারী ৫১৯৩ তাযকিরাতুল হুফ্ফায ১৬৪ , তাহযীবৃল আলমা ওয়লেলুপাত প্রথম ভাগ প্রথম অংশ ২৮৭,
তাহষীবুত তাহষীব ৬৩২, তাহযীবৃল কামাল পৃ৪ ৩৪০, আলজারহ ওয়াত্তাদীল দ্বিতীয় ভাগ দ্বিতীয়
ভলিউম ১৬৮, আল হিলইয়াহ্৫১৩৮, খুলাসাতু তাহষীবুত তাহষীব ২১৪, শাজারাতুয যাহাব ১১১৬,
তাবাকাতে ইবন সাদ ৭৪৪ ৭ তালকাতু খলফিয়্যা ২৭৫৩, তাবাকাতুল হুফ্ফায আল্লাম৷ সুয়ুতী ২৭,
আলইবার ১১ ১ ৭ আল ইকদুছ ছামীন ৫২৪৬, আলমা রিফা ওয়া ত তারিখ ২৩৩৫-৩৬৪-ক



Execution time: 0.02 render + 0.00 s transfer.