Login | Register

আল বিদায়া ওয়ান্নিহায়া - খন্ড ৯

পৃষ্ঠা ৫৩ ঠিক করুন

বললেন, ভাই আপনি আমার সম্পর্কে ভাল স্বপ্ন দেখেছেন তইি আল্লাহ আপনাকে ভাল বিনিময়
দান করুন ৷ আর আমি, আপনার স্বপ্ন তো আমাকে এত অস্থির করে তুল্যেছ যে, আমি এখন
না দিলে শান্তি পাই না রাতে ৷ এরপর থেকে দিনের পর দিন কেটে যেত তিনি কিছু মুখে
দিতেন না, উপোসী থাকতেন ৷ আর র্কীদতেন ৷ শুধুই র্কাদতেন ৷ এতে করেই তিনি মৃত্যুর
নিকটবর্তী হয়ে গিয়েছিলেন ৷ নামায পড়তেন তো পড়তেনই বিরামহীন ৷ এ অবস্থায়ত তার ভাই
হযরত হাসান বসরী (র) এর নিকট এলেন এবং বললেন, আমার ভাইকে প্রাণে রক্ষা করুন
তিনি তো মারা যাবেন ৷ তার সম্পর্কে এক লোক স্বপ্ন দেখেছে যে, “তিনি জান্নাতের অধিবাসী”
একথা শোনার পর থেকে তিনি শুধু রােযা রাখছিল ৷ খাওয়া দাওয়৷ করছেন না ৷ শুধুই ইবাদত
করছেন, ঘুমুচ্ছেন না ৷ দিনে রাতে শুধুই র্কাদছেন ৷

হযরত হাসান বসরী আলা-এব বাড়ীতে এলেন ৷ত তার দরযায় টোক৷ দিলেন ৷ তিনি দরযা
খুললেন না ৷ হযরত হাসান বসরী (র) বললেন, দরযা ৰুখুলুন, আমি হাসান ৷ তার কণ্ঠ শুনে
আল৷ (র) দরযা খুললেন ৷ হযরত হাসান (র) বললেন, ভইি আপনি কি জান্নাত পাবার জন্যে
ব্যতিব্যস্ত হয়ে পড়েছেন ? হার, মু’মিনের জন্যে জান্নাতের কী চিন্তা ! মু’মিনের জন্যে আল্পাহ্র
নিকট এমন পুরস্কার রয়েছে যা জান্নাতের চাইতে শতগুন্থণ উত্তম ৷ আপনি কি এখন আত্মহত্যার
সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ? হযরত হাসান (র) এভাবে র্তাকে অনবরত বুঝাতে লাগলেন ৷ অবশেষে
তিনি খাদ্য ও পানীয় গ্রহণ করবেন ৷ এবং ইভােপুর্বে ইবাদতে যে অবস্থানে ছিলেন তার চাইতে
সামান্য কমিয়ে আনলেন ৷

ইবন আবু দৃনয়া আলা (র)-এর বরাতে উল্লেখ করেছেন যে, একদিন তিনি স্বপ্নে দেখলেন
যে, র্জ্যনক আগত্তুক তার নিকট এসেছে ৷ সে তার মাথার চুল ধরে বলল, বাছা বন! উঠ,
আল্লাহর যিকির কর ৷ তাহলে মহান আল্লাহ তোমার কথা আলোচনা করবেন ৷ এই চেতনা ও
মনোভাব তার মধ্যে সর্বদা বিরাজমান ছিল ৷ এক পর্যায়ে তার মৃত্যু হল ৷

কেউ কেউ বলেছেন, তার এক সাথী স্বপ্নে দেখেছিল যে, প্রতিদিন বহুলোক মিলে যে
আমল করে, তার সমপরিমাণ লেক আমল একা আল৷ (র) এর প্নক্ষ থেকে মহান আল্পাহ্র
দঃাবারে পৌছে ৷

আলা (র) বলেছেন, আমরা তো নিজেৰাৰুৰুনিঃজ্যাদবকে জাহান্নাঙ্গে নিক্ষেপ করি ৷ মহান
আল্লাহ যদি আমাদেরকে সেখান থেকে বের রাত চান তবে তিনি বের করবেন ৷ নাহলে
ওটাই আমাদের বাসস্থান ৷ আলা (র) ণ্ লা,ক ছিল মানুষকে দেখানোর জন্যে








যে লেক আমল ণ্ ৩ ৷ ক্ষ্যণ হ্মণে জামা কা মোঃকুরআন পাঠ করত উচ্চ
ৰ্রে ৷ কারো নি কে গাল মন্দ ণ্ অছুছুরু’তাকে ইখলাস, নিষ্ঠা
৩ পুর্ণ বিশ্বাস শ্-ৰুণ্ ৷ ৰু ’ করল-ন্াণ্:জুর সততার বিষয়টি
ৰ্ক্সোহ্র উপর ন্যস্ত করল এবং অংন্ নেক দৃআ করতে শুরু করল ৷
ন্ ৰুর্বৃসৌং
ন্ন্ মুৰ্কো ইব্র্ন মিরদাস আযদী ণ্ হুত্দ্ব

৭৮ সনে যাদের মৃত্যু হয় তাদের একজন হলেন সুরাকা ইবন মিরদাস আযদী ৷ তিনি
ন্নে স্পষ্টভাষী কবি ছিলেন ৷ তিনি হাজ্জাজেৱ নিন্দা করেছিলেন ৷ তাই হাজ্জাজ তাকে
নীিব্রায় দেশাম্ভরিত করে ৷ সেখানে তার ওফাত হয় ৷


পৃষ্ঠা ৫৪ ঠিক করুন

নাবিপ৷ আশজ৷ দী ও অন্যান্যরা

এই সনে যাদের মৃত্যু হয় তাদের একজ্জা হলেন নাবিগ৷ আলজা দী ৷ তিনি একজন প্রসিদ্ধ
কবি ছিলেন ৷ ৭৮ হিজরীতে বিশিষ্ট ব্যক্তিদের মধ্যে আরো যায়৷ ইন্তিকাল করেন তারা
হলেন সইিব ইবন ইয়াযীদ কিনদী, সুফয়ান ইবন সালামা আসাদী, মুআবিয়৷ ইবন কুররাহ
বসরী এবং যিরর ইবন হুৰায়শ প্রমুখ (র) ৷

৭৯ হিজরী সন

এই সনে সিরিয়াতে মহামারীরুপে প্লেগ রোগের আবির্ভাব ঘটে ৷ এই রোগে প্রায় সকল
সিরীয় নাগরিক শেষ হয়ে যাবার উপক্রম হয়েছিল ৷ রােগাক্রাম্ভ হয়ে দুর্বল হয়ে পড়ায় এবং শুধু
অল্প কয়েকজন লোক বেচে থাকায় এই সনে কোন সিরীয় নাগরিক £ কানযুদ্ধে অংশ নেয়নি ৷ :
রোমানদের একটি বিশাল বাহিনী যুদ্ধ করার উদ্দেশ্যে ইনতাকিয়৷ অঞ্চলে এসে পৌছেছিল ৷ ন্
ইনতাকিয়ায় বহু লোককে তারা হতাহত করে ৷ তারা জানতষ্টে যে, রোগে আক্রান্ত হয়ে এরা
দুর্বল হয়ে পড়েছে এবং যুদ্ধে অক্ষম হয়ে গিয়েছে ৷

এই সনে উবায়দুল্পাহ্ ইবন আবু বাকরা তুরস্ক অধিপতি রাতবীলেৱ বিরুদ্ধে যুদ্ধ পরিচালনা
করেন ৷ তিনি তুর্কী নপরগুলোর ব্যাপক ক্ষতিসাধন করেন ৷ এরপর ভুর্কীগণ বার্ষিক নির্দিষ্ট হারে
কর পরিশোধেৱ শর্তে সন্ধি সম্পাদন করে ৷

এই সনে খলীফা আবদুল মালিক ভণ্ডনবী হারিছ ইবন সাঈদ মুতানাববীকে হত্যা করেন ৷
তার নাম ছিল হারিছ ইবন আবদুর রহমান ইবন সাঈদ দামেন্ধী ৷ সে ছিল আবু জাল্লাস
আবদারীর ক্রীতদাস ৷ কেউ বলেছেন, হাকাম ইবন মারওয়ানের ক্রীতদাস, মুলতঃ সে ছিল
জাওলা অঞ্চলের লোক ৷ সে দামেস্কে এসে বসতি স্থাপন করেছিল ৷ সেখানে থাকা অবস্থায় সে
খুবই ইৰাদত বন্দেগী করত ৷ দুনিয়া বিমুখ-সৎসার বিরাগী হয়ে পরহেয়পারী দেখাত ৷ এক
পর্যায়ে সে চক্রাত্তে জড়িয়ে পড়ে এবং প্রতারণার আশ্রয় নেয় ৷ মুরতাদ হয়ে যায়, আল্লাহ্র কিছু
আয়াত্তেব্র অর্থ বিকৃত করে ছেড়ে দেয় ৷ সফলকাম ঈমানদারদের দল পরিত্যাগ করে ৷
শয়তানের অনুসরণ করডঃ পােমরাহ ও পথভ্রষ্টদের দলভুক্ত হয় ৷ শয়তানুতার ঘাড়ে আঘাত
কৱাত থাকে এবং তার দুনিয়া ও আখিরাত নষ্ট করে দেয় ৷ তাকে লাঞ্ছিত-লজ্জিত ও দুর্ভাগা
করে ছাড়ে ৷ আমরা আল্লাহর অধীন, আল্লাহ্ই আমাদের জন্যে যথেষ্ট ৷ মহান আল্লাহর দেয়া
শক্তি ও সাম-র্থ ব্যতীত কোনশক্তি সামর্থ নেই-ৰু৷ আবু ব্ৰকরইবন আবু খায়ছামাহ আবদুল
ওয়াহ্হাব আবদুর রহমান ইবন টুহাসসানপ্নেকে ংবর্ণনা;করেনযে, তিনি বলেছেন, ভওনবী
মিখ্যাচারী-হ্ারিছ ছিল দামেশকের অধিবাসী ৷ সে আবু জাল্পাসের ক্রীতদা-স ছিল ৷ জাওলাহ্
অঞ্চলে তার পিতা বসবাস করত ৷ একপর্ষায়ে সে ইবলীসের খপ্পরে পড়ে ৷ মুলতং সে একজন
ইবাদত্বকা রী মুত্তাকী পরহেযগায় সােকু ছিস্ া সোনালী জুব্ব৷ পরিধান করলেও তার মধ্যে
তাকওয়৷ ও পরহেযগারীর চিহ্ন ক্যুটু,, র্দু : ৷ মোঃয়খৃনমহ্রান আল্লাহ্র প্রশংসা শুরু করত তখন
শ্রোতাদের মনে হত যে, মহান সৃন্দব প্রশংসা-ভাষ্য তারা জীবনে ৫কানদিন
শুনেনি ৷ তার ভাষা ছিল খুবই সুন্দরও শ্রুতিমধুর ৷
এক পর্যায়ে জাওলা অঞ্চলে অবহুানকারী তার পিতাকে সে লিখল যে, বাবা, আপনি
তাড়াতাড়ি আমার নিকট এসে পড়ুন ৷ কারণ, আমি এমন কিছু দেখতে পাচ্ছি যাতে আমি
আশংকা করছি যে, শয়তান আমার পিছু নিয়েছে ৷ বর্ণনাকারী বলেন, তারপর তার পিতা তার
গোমরাহীর্ উপর আরো পােমরাহী বৃদ্ধি করে দেয় ৷ তার পিতা তাকে লিখে পাঠাল যে, বৎস!

€০া৷া






Execution time: 0.01 render + 0.00 s transfer.