Login | Register

আল বিদায়া ওয়ান্নিহায়া - খন্ড ৬

অধ্যায় পৃষ্ঠা মোট
১। নবী করীম (সা)… এর স্মৃতি ৩চিহ্নসমূহ, জীবদ্দশায় তার বিশেষভাবে ব্যবহৃত পরিধেয়, অস্ত্রশস্ত্র ও বাহন্নসমূহ ও তার ব্যবহৃত আংটি প্রসঙ্গ ১৭
২। আবূ দাউদের পরবর্তী বর্ণনা : আংটি বর্জন ১৮
৩। নবী (সা)- এর তরবারির আলোচনা ২০
৪। নবী করীম (সা) -এর ব্যবহৃত পাদুকার বর্ননা ২২
৫। নবী করীম (না)-এর পানপাত্রের বিবরণ ২৩
৬। নবী করীম (না)-এর ব্যবহৃত সুরমাদানি ২৩
৭। নবী করীম (না)-এর চাদর ২৪
৮। নবী করীম, (না)-এর ঘোড়া ও অন্যান্য বাহনের বিবরণ ২৫
৯। কিতাবূশ শামাইল : রাসূল (না)-এর দেহাবয়ব ও পবিত্র স্বভাব ২৮
১০। নবী কবীম (না)-এর দীপ্তিময় ও অনুপম সৌন্দর্যের বিবরণ ২৮
১১। রাসূলুল্লাহ্ (সা)- এর গাত্রবর্নের বিবরণ ৩০
১২। রাসূল (সা)- এর মুখমণ্ডল ও সৌন্দর্যের বিবরণ, তার দাত, কপাল, ভুরু, চোখ ও নাকের গঠন সৌন্দর্যের বর্ণনা ৩৮
১৩। নবী (সা) এর কেশ বা চুলের বিবরণ ৪১
১৪। নবী (সা) এর কাধ, বাহু, বগল, পা ও পায়ের নিন্নাংশের উদ্ভিন্ন হাড়দ্বয় তার সুঠাম দেহাবয়ব ও সুবাস ৪২
১৫। নবী (সা)- এর স্কন্ধদ্বয়ের মধ্যবর্তী নবুওয়াত মোহর এর বিবরণ ৪৬
১৬। রাসূল (সা) এর দেহাবয়ব ও স্বভাব বর্ণনা বিষয়ক বিচ্ছিন্ন হাদীস ৫০ ১০
১৭। উম্মে মা'বাদেরর শব্দাবলীর ব্যাখ্যা ৫৯ ১১
১৮। তার পবিত্র স্বভাব-চরিত্রের বিবরণ ৬৯
১৯। নবীজীর হাসি কৌতুক/রস পরিহাস ৭৪
২০। নবীজীর যুহ্দ ও পার্থিব ভোগ বিমুখতা ৭৭
২১। হাদীসে ভোগবিমুখতা প্রসঙ্গ ৭৮ ১৩
২২। নবী করীম (সা)-এর বিনয় ৯০
২৩। পরিচ্ছেদ : নবী করীম (না)-এর ইৰাদত-বন্দেগী এবং এ ব্যাপারে তার চেষ্টা-সাধনা ৯২
২৪। নবী করীম (সা)-এর বীরত্ব প্রসঙ্গ ৯৫
২৫। নবী করীম (না)-এর ঐ সকল গুণাগুণের বিবরণ, যেগুলো পূর্ববর্তী নবীগণের বরাতে প্রড়াচীন গ্রন্থসমূহে উদ্ধৃত হয়েছে ৯৬
২৬। অধ্যায় : দালাইলুন নবুওয়াহ বা নবুওয়াতের প্রমাণসমুহ ১০২ ১৯
২৭। নবুওয়াতের ইদ্রিয়ানূভূত প্রমাণসমূহ ১২০
২৮। আনাস ইবন মালিকের রিওয়ায়াত ১২০
২৯। জুবায়র ইবন মূতইমের রিওয়ায়াত ১২০
৩০। হুযায়ফা ইবনুল ইয়ামানের রিওয়ায়াত ১২১
৩১। আবদুল্লাহ্ ইবন আব্বাসের রিওয়ায়াত ১২১
৩২। আবদুল্লাহ ইবন উমরের রিওয়ায়াত ১২২
৩৩। আব্দুল্লাহ ইবন মাসঊদেৱ রিওয়ায়াত ১২২
৩৪। বিভিন্ন সূত্রে এই হাদীসের উপস্থাপন এবং এ সম্পর্কে পুস্তক রচনা প্রসঙ্গে ১২৭
৩৫। পাচটি তিত্তিহীন হাদীস ১৩৪ ১৩
৩৬। ভূমণ্ডলীর মুজিযাসমূহ ১৪৬
৩৭। ভিন্ন সূত্রে হযরত আনাসের আরেকটি বর্ণনা ১৪৬
৩৮। এ প্রসঙ্গে বারা ইবন আযিবের হাদীস ১৪৮
৩৯। এ প্রসঙ্গে জাবির (রা)-এর বরাতে আরেকটি হাদীস ১৪৮
৪০। এ প্রসঙ্গে ইবন আব্বাস থেকে বর্ণিত একটি হাদীস ১৫২
৪১। এ প্রসঙ্গে আবদুল্লাহ ইবন মাসঊদেৱ একটি হাদীস ১৫২
৪২। এ প্রসঙ্গে ইমরান ইবন হুসায়ন এর হাদীস ১৫২
৪৩। এ বিষয়ে আবূ কাতাদা (রা) এর হাদীস ১৫৩
৪৪। হযরত আনাস থেকে বর্ণিত এরূপ একটি হাদীস ১৫৫
৪৫। কুবায় অবস্থিত কুয়ায় উনার যে বরকত প্রকাশ পেয়েছিলো ১৫৫
৪৬। নবী করীম (সা) এর বরকতে খাদ্য বৃদ্ধি ১৫৫
৪৭। নবী (সা) কর্তৃক ঊন্মু সুলায়মের ঘি বর্ধন ১৬১
৪৮। আবূ তালহা আনসারী কর্তৃক রাসূলুল্লাহ্ (সা) কে আপ্যায়ন ১৬৩
৪৯। আনাস (রা) থেকে বর্ণিত একটি সূত্র ১৬৪
৫০। এ প্রসঙ্গে আবূ হুরায়ৱা (রা) থেকে বর্ণিত আরেকটি হাদীস ১৭১
৫১। এ প্রসঙ্গে আবূ আয়ূব থেকে বর্ণিত আরেকটি হাদীস ১৭১
৫২। ফাতিমা (রা) এর গৃহে খাদ্য বৃদ্ধির ভিন্ন একটি ঘটনা ১৭২
৫৩। নবী গৃহে সংঘটিত আরেকটি ঘটনা ১৭৩
৫৪। আবু বকরের (রা) বাড়ির ঘটনা ১৭৩
৫৫। আবদুর রহমান ইবন আবু বকর সূত্রে পূর্বের সমার্থক আরেকটি হাদীস ১৭৪
৫৬। নবী (সা) কর্তৃক সফরে খাদ্যবৃদ্ধির আরেকটি হাদীস ১৭৫
৫৭। এ ঘটনা প্রসঙ্গে হযরত উমর সূত্রে আরেকটি হাদীস ১৭৭
৫৮। সালামা ইবনুল আকওয়া সূত্রে এ প্রসঙ্গে আরেকটি হাদীস ১৭৮
৫৯। হযরত জাবিরের ঘটনা ১৭৯
৬০। হযরত সালমানের ঘটনা ১৭৯
৬১। আবূহুরায়রার (রা) পাখেয় থলে ও তার খেজুর ১৭৯
৬২। এ প্রসঙ্গে হযরত আবূ হুরায়ৱা থেকে ভিন্ন একটি সূত্র ১৮০
৬৩। এ প্রসঙ্গে ইরবায ইবন সারিয়ার হাদীস ১৮১
৬৪। বকরীর পা সংক্রান্ত হাদীস ১৮৫
৬৫। আবূ রাফি থেকে অন্য একটি বর্ণনা সূত্র ১৮৬
৬৬। রাসূলুল্লাহর (সা) জন্য গাছের ঝুঁকে যাওয়া ১৮৮
৬৭। আমিরীর ইসলাম গ্রহণের প্রমাণ ভিন্ন একটি সূত্রে ১৯১
৬৮। আবু উমর থেকে এ প্রসঙ্গে আরেকটি হাদীস ১৯১
৬৯। রাসলুল্লাহর প্রতি অনুরাগ এবং তার বিচ্ছেদ বেদনায় খেজুর কাণ্ডের ব্যাকুলতা ১৯২
৭০। উবাই ইবন কাব থেকে প্রথম হাদীস ১৯২
৭১। হযরত আনাস থেকে দ্বিতীয় হাদীস ১৯২
৭২। তৃতীয় হাদীস জাবির ইবন আবদুল্লাহ সূত্রে ১৯৪
৭৩। চতুর্থ হাদীস সাহল ইবন সাদ সূত্রে ১৯৬
৭৪। পঞ্চম হাদীস আবদৃল্লাহ্ ইবন আব্বাস সূত্রে ১৯৭
৭৫। ষষ্ঠ হাদীস আবদুল্লাহ্ ইবন উমর সূত্রে ১৯৭
৭৬। সপ্তম হাদীস আবূ সইদ খুদরী থেকে ১৯৮
৭৭। অষ্টম হাদীস হযরত অইশা (রা) সূত্রে ১৯৯
৭৮। নবম হাদীস হযরত উম্মু সালামা (রা) থেকে ১৯৯
৭৯। নবী করীম (না)-এর হাতে পাথর কণার তাসবীহ পাঠ ২০০
৮০। বিভিন্ন প্রাণীর সাথে সম্পর্কিত নবুওয়াতের প্রমাণসমূহ ২০৫
৮১। এ প্রসঙ্গে হযরত জাবিরের রিওয়ায়াত ২০৫
৮২। ইবন আববাসের রিওয়ায়াত ২০৬
৮৩। আবূ হুরায়রা (রা) এর রিওয়ায়াত ২০৭
৮৪। এ প্রসঙ্গে আবদুল্লাহ্ ইবন জাফরের রিওয়ায়াত ২০৭
৮৫। এ প্রসঙ্গে উম্মুল মুমিনীন আইশার রিওয়ায়াত ২০৮
৮৬। ইয়ালা ইবন মুবরা আছছাকাফীর রিওয়ায়াত/ অথবা ভিন্ন ঘটনা ২০৮
৮৭। ঊটের ঘটনা বিষয়ে আরেকটি গরীব হাদীস ২১৫
৮৮। মেষ পাল কর্তৃক তাকে সিজদা সম্বলিত হাদীস ২১৬
৮৯। নেকড়ে কর্তৃক তার রিসালাতের সাক্ষ্য প্রদান ২১৬
৯০। আবূ সাঈদ খুদবী থেকে অন্য একটি সূত্র ২১৭
৯১। এ বিষয়ে আবূ হুরায়রা (রা) এর হাদীস ২১৮
৯২। এ বিষয়ে হযরত আনাসের হাদীস ২১৮
৯৩। এ বিষয়ে ইবন ঊমরের হাদীস ২১৯
৯৪। নেকড়ে প্রসঙ্গে আবূহুরায়রা থেকে আরেকটি হাদীস ২২০
৯৫। নবীগৃহের বন্যপ্রাণী যা তাঁকে সম্মান ও সমীহ করত ২২১
৯৬। সিংহের ঘটনা ২২১
৯৭। হরিণীর কথা ২২২
৯৮। (অদ্ভুত ও অগ্রহণযোগ্য) গুইসাপের কথা ২২৪
৯৯। গাধা সংক্রান্ত হাদীস ২২৬
১০০। ভারুই পাখি সংক্রান্ত হাদীস ২২৭
১০১। তামীম আদদারীর কারামাত বিষয়ক হাদীস ২৩০
১০২। এই উম্মতের এক ওলীর কারামত ২৩০
১০৩। আলা ইবনুল হাযরামীর ঘটনার সাথে আরেকটি ঘটনা ২৩১
১০৪। যায়দ ইবন খারিজার ঘটনা, মৃত্যুর পর তাঁর কথা বলা এবং নুবুওয়াত ও খিলাফাতে রাশিদার সাক্ষ্য দেওয়া ২৩৪
১০৫। অধ্যায় : মৃতদের কথা বলা এবং তাঁদের আশ্চর্যজনক বিষয়সমূহ ২৩৮
১০৬। অত্যন্ত গরীব ও বিস্ময়কর একটি হাদীস ২৩৮
১০৭। বদ আছরগ্রস্ত বালকের ঘটনা ২৩৯ ১৯
১০৮। রাসূলুল্লাহ্ (সা)-এর প্ৰতি কতিপয় প্রশ্ন ২৫৭
১০৯। মুবাহালা প্রসঙ্গ ২৬২
১১০। ইয়াহুদীদের কপটতা ও সাধুবাদিতা ২৬৩ ১৩
১১১। প্রশ্নকারীর প্রশ্ন করার পূর্বেই রাসূলুল্লাহ্ (সা)- এর উত্তর দান ২৭৫
১১২। রাসূলুল্লাহ্ (সা) এর ভবিষ্যদ্বাণী যা তার জীবদ্দশায় ঘটেছে এবং উনার ইস্তিকালের পরে সংঘটিত হবে ২৭৬
১১৩। রাসূলুল্লাহ্ (সা) এর ভবিষ্যদ্বাণী বাস্তবে পরিণত হওয়া সম্পর্কে হাদীসের সাক্ষ্য ২৮৪
১১৪। অতীতের ও ভবিষ্যতের গায়েবী সংবাদ দান ২৯০
১১৫। রাসূলুল্লাহ্ (সা)-এর ভবিষ্যদ্বাণী যা উনার ইনতিকালের পরে সংঘটিত হয় যা হবে ২৯১ ১৫
১১৬। দালাইলুন নবুওতে উল্লেখিত রাসূলুল্লাহ্ (সা) এর কতিপয় ভবিষ্যদ্বাণী ৩০৫
১১৭। আবূ যর (রা) এর ইনতিকাল সম্পর্কে ভবিষৎদ্বাণী ৩১৩
১১৮। হযরত উছমানের খিলাফতের শেষ দিকে এবং হযরত আলীর খিলাফতকালে সংঘটিত ফিতনাসমূহ সম্পর্কে রাসূলুল্লাহ্ (সা)-এর ভবিষ্যদ্বাণী ৩১৪ ১১
১১৯। হযরত আলী (রা) এর শাসনকালে নিযুক্ত সালিশদ্বয়ের ব্যাপারে রাসুলুল্লাহ (সা) এর ভবিষ্যদ্বাণী ৩২৪
১২০। খারিজী সম্প্রদায়ের আত্মপ্রকাশ ও তাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ সম্পর্কে রাসূলুল্লাহ্ (সা)- এর ভবিষ্যদ্বাণী ৩২৪
১২১। হযরত আলীর শাহাদাত সম্পর্কে রাসূলুল্লাহ্ (সা)-এর ভবিষ্যদ্বাণী ৩২৭
১২২। হযরত আলীর পরে হাসানের খিলাফত লাভ এবং পরে মূ‘আবিয়ার নিকট খিলাফত হস্তান্তর সম্পর্কে রাসূলুল্লাহ্ (সা)-এর ভবিষ্যদ্বাণী ৩২৮
১২৩। সাইপ্রাসে নৌযোদ্ধাদের সম্পর্কে ভবিষ্যদ্বাণী ৩৩১
১২৪। রোমের যুদ্ধ সংক্রান্ত ভবিষ্যদ্বাণী ৩৩২
১২৫। হিন্দুস্তানের যুদ্ধ সম্পর্কে ভবিষ্যদ্বাণী ৩৩৩
১২৬। তুর্কীদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ সম্বন্ধে ভবিষ্যদ্বাণী ৩৩৩
১২৭। আবদুল্লাহ ইবন সালাম (রা) সূত্রে ভবিষ্যদ্বাণী ৩৩৫
১২৮। মায়মূনা বিনত হারিছ এর মৃত্যুস্থান সম্পর্কে ভবিষ্যদ্বাণী ৩৩৬
১২৯। হুজর ইবৃন আদী ও তাঁর সাথীদের হত্যা সম্পর্কে ভবিষ্যদ্বাণী ৩৩৬
১৩০। রাফি ইবন খাদীজের ঘটনা ৩৩৮
১৩১। রাসূলুল্পাহ্ (না)-এর তিরোধানের পর বনূ হাশিম থেকে প্রকাশমান ফিতনা সম্পর্কে ভবিষ্যদ্বাণী ৩৩৯
১৩২। হুসায়ন (রা) এর শাহাদাত সম্পর্কে ভবিষ্যদ্বাণী ৩৪১
১৩৩। ইয়াযীদের আমলে সংঘটিত হাররার ঘটনা সম্পর্কে ভবিষ্যদ্বাণী ৩৪৭
১৩৪। আরও একটি মুজিযা ৩৫১
১৩৫। উমইয়া বংশের মূকুট উমর ইবন আবদুল আযীযের শাসন সম্পর্কে মহানবীর ইঙ্গিত ৩৫৪
১৩৬। ওহর ইবন মূনাব্বিহর প্রশংসা ও গায়লানের নিন্দা সম্পর্কে একটি সন্দেহজনক হাদীস ৩৫৭
১৩৭। মুহাম্মদ ইবন কাব আল কুরাজির আগমন কুরআনের তাফসীরে তার পাণ্ডিত্য ও স্মৃতিশক্তি সম্পর্কে ইঙ্গিত ৩৫৭
১৩৮। রাসূলুল্লাহর পরবর্তি শতাব্দীকালের ভবিষ্যদ্বাণী ৩৫৮
১৩৯। ওলীদ সম্পর্কে ভবিষ্যদ্বাণী এবং তার প্রতি উচ্চারিত সতর্কবাণী (বর্ণনায় বিশুদ্ধতা সাপেক্ষে ইনি ওলীদ ইবন আবদুস মালিক নন বরং ওলীদ- ইবন ইয়াযীদ) ৩৫৯
১৪০। ঊমাইয়া খলীফাদের সম্পর্কে রাসূলুল্লাহ্ (সা)-এর সার্বিক ভবিষ্যদ্বাণী ৩৬০
১৪১। আব্বাসী শাসন সম্পর্কে ভবিষ্যদ্বাণী ৩৬৩
১৪২। খালিদের আম্বার বিজয় (এ অভিযােগগুলাে যাতুল-উয়ূন নামে বিখ্যাত) ৩৬৭
১৪৩। কুরায়শী বার ইমাম সম্পর্কে ভবিষ্যদ্বাণী ৩৬৮
১৪৪। আব্বাসীয় বংশের শাসনামলের কতিপয় বিষয় সম্পর্কে ভবিষ্যদ্বাণী ৩৭২
১৪৫। ইমাম মালিক ইবন আনাসের প্রতি ইঙ্গি৩ পূর্ণ ভবিষ্যদ্বাণী ৩৭২
১৪৬। ইমাম মুহাম্মদ ইবন ইদরীস আশ শাফিঈর প্রতি ইঙ্গিতপূর্ণ ভবিষ্যদ্বাণী ৩৭৩
১৪৭। আরেকটি হাদীস : যালিম শাসক ও বে-আব্রু নারীদের সম্পর্কে ৩৭৭
১৪৮। আরেকটি হাদীস : উখতের প্রাচুর্য ও তার কুফল সম্পর্কে ৩৭৮
১৪৯। হাদীস : ঈসা (আ)-এর পুনরাগমন সম্পর্কে ৩৭৮
১৫০। রাসূলুল্লাহ্ (সা)-এর মু'জিযা ৩৭৯
১৫১। হযরত নূহ (আ)-এর মু'জিযা ৩৮২
১৫২। আলা ইবন হাযরামির ঘটনার মত আর একটি ঘটনা ৩৮৪ ১০
১৫৩। হযরত হুদ (আ) এর মু‘জিযা প্রসঙ্গে ৩৯৩
১৫৪। হযরত সড়ালিহ্ (আ)-এর মু‘জিযা প্রসঙ্গে ৩৯৪
১৫৫। হযরত ইব্রাহীম (আ)-এর মু‘জিযা প্রসঙ্গে ৩৯৪ ১৩
১৫৬। হযরত মূসা (আ)-কে প্রদত্ত মু‘জিযা ৪০৬ ১১
১৫৭। আবূ মূসা আল-খাওলানীর ঘটনা ৪১৬
১৫৮। রাসূলুল্লাহ্ (সা)-কে কী দেওয়া হয়েছে এবং তার পূর্ববর্তী নবীদেরকে-ই বা কী দেওয়া হয়েছিল? ৪১৮
১৫৯। সূর্যের গতি থেমে যাওয়ার ঘটনা ৪১৮
১৬০। হযরত ইদরীস (আ ) কে যা কিছু দেওয়া হয়েছিল ৪২০
১৬১। হযরত দাউদ (আ) - কে যা কিছু প্রদান করা হয়েছে, সে সম্পর্কে আলোচনা হযরত সুলায়মান ইবন দাউদ (আ )-কে প্রদত্ত বৈশিষ্ট্যড়াবলী ৪২৪
১৬২। হযরত ঈসা ইবন মরিয়ম (আ)-ণ্…ক প্রদত্ত মু‘জিযাসমূহ ৪২৯
১৬৩। রাসূলুল্লাহ্ (সা)-এর দু‘আয় এক অন্ধের দৃষ্টি লাভের ঘটনা ৪৩৪
১৬৪। খাষ্ণা প্রসঙ্গ ৪৩৯
১৬৫। ইসলামের ইতিহাসের প্রাথমিক যুগের ঘটনাবলী ও হিজরী একাদশ সালের ঘটনাপঞ্জি এবং যারা এ সনে ইনতিকাল করেন ৪৪১
১৬৬। হযরত আবূ বকর সিদ্দীক (রা)- এর খিলাফতকালের ঘটনাবলী ৪৪৮
১৬৭। আবূ বকর (রা) এর প্রথম ভাষণ ৪৪৯
১৬৮। উসামা ইবন যায়দের বাহিনীকে অভিযানে প্রেরণ ৪৪৯
১৬৯। ভণ্ডনবী আসওদ আল-আনাসীর হত্যা প্রসঙ্গ ৪৫৩
১৭০। আসওদ আনাসীর বিদ্রোহ ৪৫৬
১৭১। ধর্ম ত্যাগী ও যাকাত অস্বীকার কারীদের বিরুদ্ধে খলীফা ৪৫৯
১৭২। আবূ বকর সিদ্দীকের যুদ্ধ ঘোষণা ৪৬৪
১৭৩। যুল কিসৃসা অভিযান ৪৭০
১৭৪। যুল-কিসৃসা থেকে সেনা কমাণ্ডারদের ঊদ্দিষ্ট স্থানের দিকে যাত্রা ৪৭৫
১৭৫। ফাজাআর ঘটনা ৪৭৯
১৭৬। সাজাহ ও বনূ তামীমের ঘটনা ৪৭৯
১৭৭। মালিক ইবন নুওয়ায়রা আল-য়ারবূয়ী তামীমীর ঘটনা ৪৮৩
১৭৮। মুসায়লামা কাঘৃযাবের হত্যা প্রসঙ্গ ৪৮৫
১৭৯। বাহরায়নবাসীদের মুরতাদ হওয়া ও পুনরায় ইসলামে প্রত্যাবর্তন প্রসঙ্গ ৪৯২
১৮০। ওমান ও ইয়ামানের ‘মাহরা'র অধিবাসীদের মুরতাদ হওয়ার বর্ণনা ৪৯৬
১৮১। হিজরী ১১ সনে যাদের ইনতিকাল হয় ৫০০
১৮২। উম্মে আয়মানের মৃত্যু ৫০৩
১৮৩। ছাবিত ইবন আকরম ইবন ছালাবার ইনতিকাল ৫০৩
১৮৪। ছাবিত ইবন কায়স ইবন শাম্মাসের মৃত্যু ৫০৪
১৮৫। হাযন ইবন আবী ওহবের ইনতিকাল ৫০৫
১৮৬। যায়দ (রা) ইবন খাত্তাবের শাহাদাত ৫০৬
১৮৭। সালিম ইব্ন উবায়দের শাহাদাত ৫০৭
১৮৮। আবূ দুজানার শাহাদাত ৫০৮
১৮৯। শুজা ইবন ওহবের মৃত্যু ৫০৮
১৯০। তুফায়ল ইবন আসর-এর শাহাদাত ৫০৮
১৯১। আব্বাদ ইবন বিশর ইবন ওয়াকাশ আল-আনসারীর শাহাদাত ৫০৯
১৯২। সাইব ইবন উসমান ইবন মড়াযঊনের শাহাদাত ৫০৯
১৯৩। সাইব ইবনুল আওয়ামের শাহাদাত ৫০৯
১৯৪। আবদুল্লাহ ইবন সুহায়ল ইবন আমর এর শাহাদাত ৫০৯
১৯৫। আবদুল্লাহ ইবন আবদূল্লাহ ইবন উবায়া ইবন সুলূল-এর শাহাদাত ৫১০
১৯৬। আবদুল্লাহ ইবন আবূ বকর সিদ্দীক-এর ইনতিকাল ৫১০
১৯৭। উক্কাশা ইবন মিহসানের শাহাদাত ৫১০
১৯৮। মা'আন ইব্ন আদীর শাহাদাত ৫১১
১৯৯। আবূ হুযায়ফা ইবন ঊতবার শাহাদাত ৫১১
২০০। ঐ যুদ্ধে আনসারদের মধ্যকার যারা শহীদ হয়েছিলেন ৫১২

Execution time: 0.07 render + 0.00 s transfer.