Login | Register

আল বিদায়া ওয়ান্নিহায়া - খন্ড ৩ : পৃষ্ঠা ৫৪৪

আল বিদায়া ওয়ান্নিহায়া খন্ড ৩: পৃষ্ঠা - ৫৪৪


দিব, যেরুপ শাস্তি দিতাম আপনার সাথীদেরকে সত্য দীনে থাকার কারণে ৷ রাসুলুল্লাহ্ (মা)
তাকে অনুমতি দিলেন ৷ অনুমতি পেয়ে সে মক্কায় চলে যায় ৷ এদিকে উমায়র ইবন ওহাহব যখন
মক্কা থেকে বের হয়ে আসছিল, তখন থেকেই সাফওয়ান মক্কাবাসীদের কাছে বলে আসছিল,
তোমরা সুসংবাদ গ্রহণ কর, অল্প দিনের মধ্যেই এমন এক ঘটনা জানতে পারবে, যা তোমাদের
বদরের ব্যথা-রেদনা ভুলিয়ে দেবে ৷ সে মদীনা থেকে আগত প্রতিটি কাফেলার কাছেই উমায়র
সম্পর্কে খোজ-খবর নিচ্ছিল ৷ অবশেষে এক কাফেলা এসে তাকে উমায়বের ইসলাম গ্রহণ
সম্পর্কে সং দে দিল ৷ সড়াফওয়ান তখন শপথ নিল যে সে আর কখনষ্হৃ৷ তার সাথে কথা বলবে
না এবং কোন প্রকার সাহড়ায্যও তাকে দেবে না ৷ ইবন ইসহাক বলে উমায়র মক্কায় এসে
অবস্থান করেন এবং মানুষকে ইসলামের দিকে আহ্বান করতে থাকেন ,কউ তার বিরোধিতা
করলে তাকে কঠোর শাস্তি দিতেন ৷ ফলে তার হাতে অনেকেই ইসলদ্বমগ্রহণ করে ৷ ইবন
ইসহাক বলেন : উমায়র ইবন ওয়াহব অথবা হারিছ ইবন হিশাম যে কোন একজন বদর যুদ্ধের
দািন ইবলীসকে প্রত্যক্ষ ভাবে দেখেছিল, যখন সে পশ্চাদপসরণ করে পালিয়ে যাচ্ছিল এবং এ
কথা বলতে বলতে যাচ্ছিল যে, “তোমাদের সাথে আমার কোন সম্পর্ক রইল না, তোমরা যা
দেখতে পাও না, আমি তা দেখি ৷ ” বদর যুদ্ধে সেদিন ইবলীস মুদলাজ গোত্রের নেতা সুরাকা
ইবন মালিক ইবন জুশাম এর আকৃতি ধারণ করে এসেছিল ৷

অনুচ্ছেদ
এ স্থলে ইমাম মুহাম্মদ ইবন ইসহাক বদর যুদ্ধ প্রসঙ্গে কুরআনে অবতীর্ণ আয়াত অর্থাৎ সুরা
আনফালের প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত বিশদভাবে এবং সুন্দরভাবে ব্যাথ্যা-বিশ্নেষণ করেছেন ৷

আমরা আমাদের তাফসীর গ্রন্থে এ বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছি ৷ আগ্রহী পাঠকদের
সেখান থেকে অধ্যয়ন করার পরামর্শ দেয়া হল ৷

অনুচ্ছেদ
এ পর্যায়ে এসে ইবন ইসহাক বদর যুদ্ধে অংশগ্রহণকারী মুসলমানদের নাম লিপিবদ্ধ
করেছেন ৷ তিনি প্রথমে যুদ্ধে অংশ্যাহণকারী মুহড়াজিরদের নাম, তারপর অংশগ্রহণকারী অড়ানসার
আওস ও খাযরাজদের নাম উল্লেখ করেছেন ৷ শেষের দিকে বলেছেন ও মুসলিম যুহাজির ও
অড়ানসার যারা সরাসরি যুদ্ধে অং গ্রহণ করেছেন, আর র্ষারা সরাসরি যুদ্ধক্ষেত্রে যাননি, কিন্তু
তাদেরকে গনীমতের অংশ ও পুরস্কার দেয়া হয়েছে, র্তাদের সর্বমোট সংখ্যা তিনশ’ চৌদ্দ
(৩১৪) জন ৷ এদের মধ্যে মুহাজির তিরাশি (৮৩), আওস গোত্রের একষট্টি (৬১) এবং খাযরাজ
গোত্রের একশ সত্তর (১৭০) জন ৷ ইমাম বুখারী তার সহীহ্ গ্রন্থে বদরী সাহাবীগণের নাম
আরবী বর্ণনামালায় ক্রম অনুযায়ী উল্লেখ করেছেন ৷ তবে তিনি প্রথমে রাসুলুল্লাহ্ (সা) এর নাম
তারপরে আবু বকর, উছমান ও আলী (রা)-এর নাম লিখেছেন ৷ এই গ্রন্থে বদরী মুসলমানদের
নাম আরবী বর্ণমালা অনুযায়ী লেখা হল ৷ তবে হাফিয যিয়াউদ্দীন মুহাম্মদ আবদুল ওয়াহিদ
রচিত আহকামুল কবীর’ গ্রন্থের অনুসরণে সর্বপ্রথম বদরীদের মহান নেতা শ্রেষ্ঠ আদম সন্তান

ঘুহাম্মাদুর রাসুলুল্লাহ্ (সা) এর নাম উল্লেখ করা হল ৷



Execution time: 0.04 render + 0.00 s transfer.