Login | Register

আল বিদায়া ওয়ান্নিহায়া - খন্ড ৩ : পৃষ্ঠা ৫১৭

আল বিদায়া ওয়ান্নিহায়া খন্ড ৩: পৃষ্ঠা - ৫১৭


“যারা নিজেদের উপর জুলুম করে, তাদের জান কবযের সময় ফেরেশতাগণ বলে, তােমরা
কী অবস্থায় ছিলে’হ্র তারা বলে দুনিয়ার আমরা অসহায় ছিলাম ৷ তারা বলে, দুনিয়া কি এমন
প্রশস্ত ছিল না, যেখানে তোমরা হিজরত করতে জ ৷হান্নামই এদের আবাসস্থল আর তা কত মন্দ
আবাস” (৪০ ৯৭) ৷

বদর যুদ্ধে যে ট বন্দী সং থ্যা সত্তর জন ৷ পরে এ বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা আসবে
ইনশা ৷আল্লাহ্ ৷ বন্দীদের মধ্যে কয়েকজন ছিলেন রাসুলুল্পাহ্ (সা) এর পরিবারের অস্তত্যুঃ ৷
ফ্রোন (১) রাসুলুল্লাহ্র (সা)-এর চাচা আব্বাস ইবন আবদুল মুত্তালিব, (২) তার চাচড়াত
ভাই আকীল ইবন আবু তালিব এবং (৩) নাওফিল ইবন হারিছ ইবন আবদুল মুত্তালিব ৷ এখান
থেকে দলীল গ্রহণ করে ইমাম শাফিঈ ও ইমাম বুখারী বলেন, কেউ যদি রক্ত সম্পর্কীয় কোন
আত্মীয়ের মুনীর হয়ে যায়, তবে সে এমনিতে আযাদ হবে না; বরং গােলামই থাকবে ৷ কিন্তু
ইবন সাযুরা থেকে হাসানের বর্ণিত হাদীছ এর বিপরীত ৷ এই তালিকার মধ্যে আরও আছেন
রাসুলুল্লাহ্ (সা) কন্যা যয়নবের স্বামী আবুল আস ইবন রবী’ ইবন আবদে শাম্স ইবন
উমাইয়া ৷

অনুভ্রুচ্ছদ

বদর যুদ্ধের বন্দীদের হত্যা করা হবে, নাকি মুক্তিপণ নিয়ে ছেড়ে দেয়৷ হবে-এ ব্যাপারে
সাহাবাগণের মধ্যে মতভেদ দেখা দেয় ৷ এ প্রসঙ্গে ইমাম আহমদ বলেন : আলী ইবন আসিম
হাসান সুত্রে বর্ণনা করেন ৷ তিনি বলেন, রাসুলুল্লাহ্ (সা) বদর যুদ্ধের বন্দীদের সম্পর্কে
সড়াহাবীগণের পরামর্শ চান এবং বলেন : আল্লাহ্ তাদেরকে তোমাদের করায়াত্ত করে দিয়েছেন ৷
হযরত উমর র্দাড়িয়ে বললেন, ইয়া রাসুলাল্লাহ্ ! ওদেরকে হত্যা করে দিন ! রাসুলুল্পাহ্ (সা)
; উমরের দিক থেকে মুখ ফিরিয়ে পুনরায় লোকদের কাছে এবইি ব্যাপারে পরামর্শ চাইলেন ৷
এবার আবু বকর সিদ্দীক দাড়িয়ে বললেন, ইয়৷ রাসুলাল্পাহ্৷ আমার মত হচ্ছে, তাদের নিকট
থেকে মুক্তিপণ গ্রহণ করে তাদেরকে ছেড়ে দেয়৷ হোক ৷ এ কথা ওনার পর রাসুলুল্লাহ্র চেহারার
বিষগ্ন তার কেটে গেল এবং মুক্তিপণ নিয়ে তিনি তাদেরকে ছেড়ে দিলেন ৷ হাসান বলেন, এ
পরিপ্রেক্ষিতে আল্পাহ্ তাআলা আয়াত নাযিল করলেনং ,

আল্লাহর পুর্ব বিধান না থাকলে তোমরা যা গ্রহণ করেছ তাতে তোমাদের উপর মহড়াশাস্তি
আপতিত হত” (৮ : ৬৮) ৷
ইমাম আহমদ, মুসলিম, আবু দাউদ, তিরমিযী ও আলী আল-মদীনী ইকরিমা ইবন আমার
সুত্রে ত্রে উমর ইবন যা তার (বা) থেকে বর্ণিত ৷ তিনি বলেন, বাসুলুল্লাহ্ (সা) বদর যুদ্ধের দিনে
তার সাহাবীগণের প্রতি লক্ষ্য করলেন, তারা ছিলেন সং থ্যায় তিনশ র কিছু বেশী ৷ পরে মুশরিক
বাহিনীর প্রতি লক্ষ্য করে দেখতে পেলেন, তারা ছিল হাযারের উধের্ব ৷ এরপর তিনি ঘটনার
বিস্তারিত বিবরণ দেন, যার শেষের কথা ছিল কাফিরদের সত্তরজন নিহত হয় এবং সত্তরজন
বন্দী হয় ৷ পরে রাসুলুল্লাহ্ (সা) (বন্দীদের ব্যাপারে) আবু বকর, আলী ও উমর (রা)-এর সাথে



Execution time: 0.11 render + 0.00 s transfer.