Login | Register

আল বিদায়া ওয়ান্নিহায়া - খন্ড ৩ : পৃষ্ঠা ৪৫০

আল বিদায়া ওয়ান্নিহায়া খন্ড ৩: পৃষ্ঠা - ৪৫০


এ সম্পর্কে সংশ্লিষ্ট হাদীছ আর বর্ণিত রিওয়ায়াত এবং এ থেকে সংগৃহীত বিধান সম্পর্কে
আমরা তাফসীর গ্রন্থে বিস্তারিত আলোচনা করেছি ৷ সমস্ত প্রশংসা আল্লাহর জন্য ৷
ইমাম আহমদ (র) আবু নসর, আম্র ইবন মুররা সুত্রে মুআয ইবন জাবাল থেকে বর্ণনা
করে বলেন : সালাতের উপর তিনটা অবস্থা অতিবাহিত হয় সিয়ামের উপরও তিনটা অবস্থা
অতিক্রান্ত হয়েছে ৷ তারপর তিনি সালা তে তর অবস্থা উল্লেখ করেন সিয়ামের অবস্থা সম্পর্কে
তিনি বলেনং : রাসুলুল্লাহ্ (সা) মদীনায় আগমন করে নামে তিন দিন সিয়াম পালন করতেন ৷ এ
সময় তিনি আশুরার রোযাও রাখতেন ৷ তারপর আল্লাহ ন্গুার উপর রােয়৷ ফরয় করে আয়াত
নাযিল করেন :
-“ণ্’ওএও ;এ :; এ ৷ এ এএ এও ণ্এন্এএ :ওএএ এএ’ও প্ং০’এন্ ;;এ এএএ

থেকে ;,ট্রু র্চুট্রু০ ণ্ঢ়: হ্ঠু ১১ ছুঠুসৌং ১ ৷ ; পর্যন্ত ৷ তখন্য যার ইচ্ছা রোযা রাখতো

আর যার ইচ্ছা একজন মিসকীনকে খাবার দান করলেত তার জন্য আ ই যথেষ্ট হতো ৷ অতঃপর

আল্লাহ অপর আয়াত নাযিল
<ৰু০;পুস্ স্ ৷ ণ্বু০ ১ঠু: পর্যন্ত ৷ এতে সুস্থ মুকীমের জন্য সিয়াম পালন অবধারিত করেন
এবং পীড়িত আর মুসাফিরের জন্য রুখসত বা রাখা না রাখার অবকাশ দেন ৷ যে বয়োবৃদ্ধ
ব্যক্তি সিয়াম পালন করতে সক্ষম নয়, তার জন্য রােযা পালন না করার এ অবকাশ বা
অনুমতি ৷ এ হলো দুটো অবস্থা ৷ তিনি বলেন০ : তারা পানাহার এবং ত্রীগমন করতে৷ যাবত না
ঘুমাতে৷ ৷ ঘৃমালে এ (সব থেকে) বিরত থাকতে ৷ ৷ আনসারের এক ব্যক্তি যাকে বলা হতে তা
ছুরমা, লোকটি সারাদিন রােযা রেখে কায়িক শ্রম দেয় অর্থ ৎ শ্রমিকের কাজ করে এবং গৃহে
ফিরে ইশার নামায পড়ে ঘুমিয়ে পড়ে পানাহার না করেই এবং এ অবস্থায়ও পরদিন বোযা
রাখে ৷ রাসুলুল্লাহ্ (স) তাকে দেখলেন যে, বেশ পরিশ্রম করছে ৷ রাসুলুল্লাহ্ (সা) তাকে
বললেনঃ

“কি ব্যাপার, আমি তোমাকে কষ্টের পরিশ্রম করতে দেখছি ৷ লোকটি তাকে এ ব্যাপারে
অবহিত করলো ৷ বর্ণনাক৷ রী বলেন০ ং একদিন উমর (রা) নিদ্রার পর ত্রীগমন করেন ৷ পরে তিনি
রাসুলুল্লাহ্ (স) এর নিকট আগমন করে তাকে এ সম্পর্কে জানালে আল্লাহ তা আলা ষ্কঠুধু ; ৷

৷ ৷প্রু; ৷ ণ্’;
ট্রু ৷ পর্যন্ত আয়াত নাযিল করেন ৷

আবু দাউদ তার সুনান গ্রন্থে এবং হাকিম তার মুস্তাদরাকে মাসউদীর হাদীছ থেকে অনুরুপ
হাদীস বর্ণনা করেছেন ৷ আর বুখারী-মুসলিমে যুহ্রী সুত্রে আইশা (বা) থেকে বর্ণিত ৷ তিনি
বলেন : আশুরায় রােযা রাখা হতো; কিন্ডু রমাযানের বোয়ার আয়াত নাযিল হলে যার ইচ্ছা
রোযা রাখভো যার ইচ্ছা না রাখতো ৷ ইমাম বুখারী (র ) ইবন উমর এবং ইবন মাসউদ (বা)



Execution time: 0.02 render + 0.00 s transfer.