Login | Register

ফতোয়া: মুফতি মেরাজ তাহসিন

ফতোয়া নং: ৬২৫০
তারিখ: ২৭/১০/২০১৭
বিষয়: লেন-দেন

একদিন মসজিদে আমার পাশে জুতা রেখে জামাতে দাঁড়িয়েছি। এরই মধ্যে...

প্রশ্ন

একদিন মসজিদে আমার পাশে জুতা রেখে জামাতে দাঁড়িয়েছি। এরই মধ্যে দেখি যে, আমার নতুন জুতা যা প্রায় আড়াই হাজার টাকা দিয়ে ক্রয় করেছি তা একজন নিয়ে যাচ্ছে।

আমি এটা দেখতে পেয়ে নামাযের নিয়ত ছেড়ে দেই এবং চোর থেকে জুতা উদ্ধার করি। এরপর আবার নামাযে শরিক হই। এখন জানতে চাই জুতার জন্য নামায ছেড়ে দেওয়া কি ঠিক হয়েছে, নাকি আমি গুনাহগার হয়েছি?

উত্তর

প্রশ্নোক্ত ক্ষেত্রে নামায ছেড়ে দিয়ে জুতা উদ্ধার করা নাজায়েয হয়নি। মূল্যবান ও প্রয়োজনীয় জিনিস হেফাজতের জন্য নামায ছেড়ে দেওয়া জায়েয আছে। একাধিক তাবেঈ থেকে বর্ণিত আছে যে, নামায অবস্থায় তাদের আরোহী চলে যাচ্ছিল তখন তারা নামায ছেড়ে দিয়ে আরোহী হেফাজত করেছেন। আর কোনো কোনো ফকীহ বলেছেন, এক দিরহাম অর্থাৎ ৩.০৬১৪ গ্রাম রূপা সমপরিমাণ সম্পদ হেফাযতের জন্যও নামায ছেড়ে দেওয়া জায়েয আছে। যা বর্তমান মূল্য হিসাবে প্রায় ৩১৫ টাকা হয়।

এছাড়া নামাযে দাঁড়ানোর আগেই জুতা/মালপত্র হেফাযতে রাখা উচিত; যেন নামায অবস্থায় এ কারণে মনোযোগ নষ্ট না হয়।

-মুসান্নাফে আবদুর রাযযাক ২/২৬১; শরহুল মুনইয়া ৩৫৪; ফাতাওয়া হিন্দিয়া ১/১০৯; আদ্দুররুল মুখতার ২/৫১

উত্তর দিয়েছেন : মাসিক আল-কাওসার
এ বিষয়ে আরো ফতোয়া:
লেন-দেন এর উপর সকল ফতোয়া >>

Execution time: 0.02 render + 0.00 s transfer.