Login | Register

ফতোয়া: মুফতি মেরাজ তাহসিন

ফতোয়া নং: ৫১০৫
তারিখ: ২৭/১০/২০১৭
বিষয়: ব্যবসা-চাকুরী

আমি এক আত্মীয়ের কাছ থেকে ৪০,০০০/- টাকা ঋণ নিই এবং...

প্রশ্ন

আমি এক আত্মীয়ের কাছ থেকে ৪০,০০০/- টাকা ঋণ নিই এবং সেই টাকা নিয়ে আমার বেশ উপকার হয়। সে আমাকে বলেছে, তোমার যে পরিমান ইচ্ছা বাড়িয়ে দিও। আমার উপকারের বিনিময় হিসেবে তাকে অতিরিক্ত কিছু দেওয়া যাবে কি?

উত্তর

প্রশ্নোক্ত ক্ষেত্রে ঋণদাতা যেহেতু ঋণের ৪০,০০০/- টাকা থেকে কিছু অতিরিক্ত দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন তাই এ অতিরিক্ত দেওয়া-নেওয়া সুদ হবে।

নবী করীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর সাহাবী ফুযালাহ বিন উবায়দ রা. থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, যে ঋণের সাথে অতিরিক্ত কিছু দেওয়া নেওয়ার শর্ত থাকে তা সুদ।-আসসুনানুল কুবরা, বায়হাকী ৫/৩৫০

এমনিভাবে ইবনে সীরিন রাহ. থেকে বর্ণিত, জনৈক ব্যক্তি অপর এক ব্যক্তিকে তার ঘোড়ায় আরোহণের শর্তে কিছু দিরহাম ঋণ দিল। ইবনে মাসউদ রা.কে তা জানানো হলে তিনি বললেন, তার জন্য ঘোড়ায় আরোহণ করাটা সুদ হয়েছে।-প্রাগুক্ত

হযরত আবদুল্লাহ ইবনে মাসউদ রা. থেকে বর্ণিত, আল্লাহর রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন, আল্লাহ তাআলা সুদ দাতা, গ্রহীতা, সাক্ষী ও লেখক সকলকে অভিসম্পাত করেন।

-মুসনাদে আহমদ, হাদীস : ৩৭২৫; ইলাউস সুনান ১৪/৫১৫; মাবসূত, সারাখসী ১৪/৩৫; বাদায়েউস সানায়ে ৬/৫১৮; ফাতাওয়া তাতারখানিয়া ৯/৩৮৮

উত্তর দিয়েছেন : মাসিক আল-কাওসার
এ বিষয়ে আরো ফতোয়া:
ব্যবসা-চাকুরী এর উপর সকল ফতোয়া >>

Execution time: 0.07 render + 0.00 s transfer.