Login | Register

ফতোয়া: মুফতি মেরাজ তাহসিন

ফতোয়া নং: ৪৭৮৩
তারিখ: ২৮/১২/২০১৬
বিষয়: আজান-নামাজ

বিদয়াতী ইমামের পিছনে নামায পড়ার বিধান ৷

প্রশ্ন
হুজুর, আমাদের মসজিদের ইমাম সাহেব বিদায়াতী৷ যিনি নবীজিকে হাজির নাজির আলিমু গায়েব ইত্যাদি আকিদা পোষন কারী ৷ উক্ত ইমামের পিছনে নামায পড়ার হুকুম কি? জানিয়ে বাধিত করবেন ৷
উত্তর
বিদয়াতী দুই প্রকার। যথা:
২৷ এমন বিদয়তী যার আক্বিদা বিশ্বাস কুফর পর্যন্ত পৌঁছায়। যেমন-নবীজী সাঃ কে হাজির নাজির বিশ্বাস করা, আলিমুল গায়েব বিশ্বাস করা, ভাল-মন্দ ফায়সালা করার মালিক বিশ্বাস করা।
এমন বিদয়াতির পিছনে নামায পড়া জায়েজ নয়। ইক্তিদা করলেও নামায হবেনা। উক্ত নামায পুনরায় পড়া জরুরী ৷
২৷ এমন বেদয়াতি যার কাজকর্ম কবিরাহ গোনাহ পর্যন্ত
পৌঁছায়। যেমন এক মুষ্টির আগে দাড়ি কাটা, উরস করা, প্রচলিত মিলাদ কিয়াম করা, বেপর্দায় মেয়েদের পড়ানো, কবরে আজান দেয়া ইত্যাদি। তাহলে উক্ত ব্যক্তির পিছনে ইক্তিদা করা মাকরুহে তাহরিমী। পড়লে নামায হবে। কিন্তু নামায মাকরুহে তাহরিমী হবে। নামাযটি পুর্ন সহীহরুপে আদায়ার্থে পুনরায় পড়ে নেয়া চায়৷ এধরনের ব্যক্তির পিছনে নামায না পড়াই উত্তম হবে।
অতএব প্রশ্নে বর্নিত সুরতে আপনাদের ইমামের পিছনে নামায সহিহ হবে না ৷ উক্ত ইমামকে তৌবা করে সঠিক পথে ফিরে না আসলে পরিবর্তন করা জরুরী ৷
-বাদায়েউস সানায়ে’-১/৩৮৭;ফাতওয়ায়ে শামী-২/২৯৯; ফাতওয়ায়ে আলমগীরী-১/৮৪; আল বাহরুর রায়েক-১/৬১০৷
মুফতী মেরাজ তাহসীন মুফতীঃ জামিয়া দারুল উলুম দেবগ্রাম ব্রাক্ষণবাড়িয়া ৷
01756473393

উত্তর দিয়েছেন : মুফতি মেরাজ তাহসিন
এ বিষয়ে আরো ফতোয়া:
আজান-নামাজ এর উপর সকল ফতোয়া >>

Execution time: 0.08 render + 0.00 s transfer.